সংস্কারের অভাবে বেহাল রাস্তা, বিক্ষোভ গ্রামবাসীদের

296

গাজোল: দীর্ঘদিন ধরে রাস্তা বেহাল। রাস্তা মেরামতের দাবিতে সোমবার গাজোলের শ্রীকৃষ্ণ পুর এলাকার ৮১ নম্বর জাতীয় সড়ক অবরোধ করে বিক্ষোভ দেখালেন স্থানীয় বাসিন্দারা। এর জেরে দীর্ঘক্ষণ যান চলাচল বন্ধ হয়ে যায়। অবশেষে সেচ দপ্তরের আশ্বাসে অবরোধ তুলে নেন গ্রামবাসীরা।

অবরোধকারীদের অভিযোগ, এই রাস্তাটি শ্রীকৃষ্ণপুর থেকে মশালদিঘি পর্যন্ত চলে গিয়েছে। রাস্তার দৈর্ঘ্য প্রায় সাত কিলোমিটার। এই রাস্তাটি ব্যবহার করেন চারটি গ্রামের কয়েক হাজার মানুষ। দীর্ঘদিন ধরেই রাস্তাটি বেহাল। বন্যার সময় নৌকা নিয়ে এলাকার মানুষজন চলাফেরা করেছেন। কিন্তু বন্যার জল সরে যেতেই জলে কাদায় রাস্তা বেহাল হয়ে পড়েছে। যার ফলে হাজার হাজার মানুষ চরম সমস্যার মধ্যে পড়েছেন। তাঁর বলেন, ‘আমরা এর আগে প্রশাসনের কাছে রাস্তাটি পিচ রাস্তা করে দেওয়ার দাবি জানিয়েছিলাম। কিন্তু আমাদের কোনও কথা মানা হয়নি।’ এলাকার প্রবীণ বাসিন্দা সত্য রঞ্জন বিশ্বাস বলেন, ‘এই রাস্তার জন্য চরম অসুবিধার সম্মুখীন হতে হয় আমাদের। এমনকি হাসপাতালে যেতেও চরম সমস্যার মধ্যে পড়তে হয়। দীর্ঘদিন ধরেই বেহাল অবস্থায় পড়ে রয়েছে এই রাস্তা। যার ফলে তিতিবিরক্ত হয়ে সমস্ত এলাকার মানুষ এবং জাতীয় সড়ক অবরোধ করে বিক্ষোভে শামিল হয়েছে।’

- Advertisement -

জাতীয় সড়ক অবরোধের জেরে গুরুত্বপূর্ণ এই রাস্তায় যান চলাচল বন্ধ হয়ে যায়। অবশেষে প্রায় ঘণ্টা দুয়েক পর সেচ দপ্তরের আশ্বাসে অবরোধ তুলে নেন গ্রামবাসীরা। গ্রামবাসী তপন কুমার চৌধুরী বলেন, ‘সেচ দপ্তর আমাদের আশ্বাস দিয়েছে কয়েকদিনের মধ্যেই পর্যাপ্ত পরিমাণ মোরাম দিয়ে রাস্তা মেরামত করে দেবে। এই আশ্বাস পাওয়ার পর আমরা পথ অবরোধ প্রত্যাহার করে নিয়েছি। তবে রাস্তা মেরামত না হলে আগামী দিনে আবার আন্দোলন করা হবে।’

সেচ দপ্তরের আধিকারিক সুপ্রিয় সরকার বলেন, ‘বর্ষার সময় রাস্তা দিয়ে ট্রাক্টর যাতায়াত করতে গিয়ে রাস্তাটা খারাপ হয়ে গিয়েছে। বর্ষায় রাস্তার কোনও কাজ করা যাবে না। গ্রামবাসীদের বলেছি আপাতত কিছু গাড়ি দিয়ে বেহাল জায়গাগুলোকে মেরামত করিয়ে দেওয়ার ব্যবস্থা ব্যবস্থা করা হবে।’