পাগলি রোডকে ফের কাঁচা করার দাবি ভুক্তভোগীদের

408

রাঙ্গালিবাজনা : আলিপুরদুয়ার জেলার মাদারিহাট-বীরপাড়া ব্লকের খয়েবাড়ি গ্রাম পঞ্চায়েতের পাগলি রোডকে পাকা থেকে ফের কাঁচা রাস্তায় পরিণত করার দাবি তুলেছেন স্থানীয় বাসিন্দারা। তাঁদের অভিযোগ, চার বছর ধরে ওই পাকা রাস্তায় পিচের চাদর নেই। ফলে ওই রাস্তায় চলাচল করতে তাঁদের প্রতিদিন নরকয়ন্ত্রণা ভোগ করতে হচ্ছে। তাঁদের অভিযোগ, বারবার প্রতিশ্রুতি দিলেও জনপ্রতিনিধিরা রাস্তাটি পুনর্নির্মাণের উদ্যোগ নিচ্ছেন না। স্থানীয়দের বক্তব্য, রাস্তাটি পুনর্নির্মাণের সামর্থ্য না থাকলে জনপ্রতিনিধিরা ওই রাস্তাটি থেকে কাটা ধারালো পাথরগুলি তুলে সেটিকে ফের আগের মতো কাঁচা রাস্তায় পরিণত করুক। এলাকায় বাসিন্দা তথা শিক্ষক ফিরোজ খান বলেন, ঢের হয়েছে। পাকা রাস্তায় চলাচল করার শখ আমাদের মিটে গিয়েছে। রাস্তাটিকে আবার কাঁচা রাস্তায় পরিণত করা হোক। তাতে অন্ততপক্ষে চলাচলে এত যন্ত্রণা ভোগ করতে হবে না।

৪৮ নম্বর এশিয়ান হাইওয়ে মুজনাই সেতু থেকে শুরু হয়ে ওই রাস্তাটি রায়পাড়া ও কাজিপাড়ার পাগলির পুল হয়ে রাঙ্গালিবাজনা-ফালাকাটা সড়কে যুক্ত হয়েছে। কিন্তু রাস্তাটি বেহাল হয়ে পড়ায় চলাচল করাই মুশকিল হয়ে পড়েছে বলে অভিযোগ স্থানীয়দের। প্রসঙ্গত, বছর ছয়েক আগে রাস্তাটি পাকা করে আলিপুরদুয়ার জেলা পরিষদ কর্তৃপক্ষ। কিন্তু এক বছর যেতে না যেতেই রাস্তাটির বেশিরভাগ অংশ থেকেই পিচের চাদর উঠে যায়। এরপর থেকে বিপজ্জনকভাবে বেরিয়ে রয়েছে কাটা পাথর। পাকা রাস্তার ওপর থেকে পিচের চাদর উঠে গিয়ে বড় বড় গর্ত তৈরি হয়েছে। স্থানীয় বাসিন্দারা জানান, কমবেশি দেড় কিমি দীর্ঘ ওই রাস্তাটি নির্মাণের সময়ই কাজের মান নিয়ে প্রশ্ন ওঠে। তখন ঠিকাদার ও বাস্তুকারকে ঘিরে বিক্ষোভ দেখান স্থানীয় বাসিন্দারা। স্থানীয় বাসিন্দারা জানান, তাঁদের অভিযোগ সত্যি বলে প্রমাণিত হয়েছে। পাকা রাস্তা তৈরির কিছুদিন পর থেকেই পিচের চাদর উঠে যেতে শুরু করে।

- Advertisement -

রাঙ্গালিবাজনা চৌপথি হয়ে ঘুরপথে যাতায়াত করার চেয়ে বীরপাড়া, শিশুবাড়ি যেতে অনেকেই ওই রাস্তাটিকে ব্যবহার করে থাকেন। তবে বর্তমানে বেহাল হওয়ার কারণে রাস্তাটিকে এড়িয়ে যাচ্ছেন অনেকেই। ওই এলাকার বাসিন্দা ওয়ারেসুল আলম বলেন, ‘কাটা পাথরে যানবাহনের টায়ার নষ্ট হয়ে যাচ্ছে। হেঁটে চলাচল করতেও সমস্যা হচ্ছে। এমন রাস্তার চেয়ে আগের কাঁচা রাস্তাই ভালো ছিল। রাস্তাটি যদি আবার পাকা করা সম্ভব না হয়ে তাহলে আর্থমুভার দিয়ে কাটা পাথরগুলি তুলে ফেলে রাস্তাটিকে ফের কাঁচা রাস্তায় পরিণত করার উদ্যোগ নেওয়া হোক।’ আলিপুরদুয়ার জেলা পরিষদের স্থানীয় সদস্য আশা নার্জিনারি বলেন, ‘রাস্তাটি পুনর্নির্মাণের দ্রুত উদ্যোগ নেওয়া হবে।’ মাদারিহাট-বীরপাড়া পঞ্চায়েত সমিতির পূর্ত কর্মাধ্যক্ষ রশিদুল আলম বলেন, ‘পথশ্রী প্রকল্পে রাস্তাটি পুনর্নির্মাণের চিন্তাভাবনা চলছে।’

ছবি- এমনই হাল হয়েছে পাগলি রোডের।

তথ্য ও ছবি- মোস্তাক মোরশেদ হোসেন