উত্তরবঙ্গ সংবাদের খবরের জেরে রাস্তার মেরামতি শুরু

238

সাজাহান আলি, পতিরাম: উত্তরবঙ্গ সংবাদে খবর প্রকাশিত হতেই মাত্র তিনদিনের মাথায় বেহাল রাস্তার প্রাথমিক মেরামতি শুরু হল রবিবার। ঘটনাটি ঘটেছে বালুরঘাট ব্লকের বোল্লা গ্রাম পঞ্চায়েতের অধীন বসন্তহার থেকে পূর্ব মহেশপুর গ্রামে যাওয়ার মাটির কাঁচা রাস্তায়। এদিন বোল্লা গ্রাম পঞ্চায়েতের সহভাগি প্রকল্পের তরফে দেওয়া ৬ জন শ্রমিকের সঙ্গে পূর্ব মহেশপুর গ্রামের ৩০ জন গ্রামবাসী এই রাস্তা মেরামতির কাজে হাত লাগান।

বেহাল রাস্তার ভীষণ খারাপ জায়গাগুলোতে রাস্তার পাশ থেকে মাটি কেটে ভরাট করেন তারা। দূর্বাঘাস যুক্ত চাপ চাপ মাটি গর্ত ও খারাপ জায়গাগুলোতে দিয়ে কোন রকমে কাজ চালানোর মতো করা হয়। গ্রাম পঞ্চায়েতের দেওয়া শ্রমিকের সঙ্গে পূর্ব মহেশপুর গ্রামের বাসিন্দা মকলেসুর সরদার, বাবু হক, বিশু ভগত, মানিক হালদার, মাজিদুর সরদার, রানা ওঁরাও, তমিজউদ্দিন মিঞা, কালী ওঁরাওয়ের অনেকই গ্রামবাসী কোদাল, ভুটভুটি নিয়ে সারাদিন কাজ করেন।

- Advertisement -

এরপর সপ্তাহখানেক বাদে এই রাস্তায় ইটভাটার রাবিশ ফেলা হবে। তবে গ্রামবাসী ও তথা এলাকার মানুষের একটাই দাবি পুরো কাঁচা রাস্তাকে পাকা করে দিতে হবে প্রশাসনকে। প্রসঙ্গত উল্লেখ্য, স্বাধীনতার পর থেকে চরম উপেক্ষিত। বেহাল পূর্ব মহেশপুর গ্রামের রাস্তা কেটে গ্রামবাসীরা বিক্ষোভে সামিল হয় ও গ্রাম পঞ্চায়েতে ডেপুটেশন দেন গত ২৫ জুন। দীর্ঘ বঞ্চনা ও তীব্র বিক্ষোভের সচিত্র প্রতিবেদন প্রকাশিত হয় পরদিন। গ্রাম পঞ্চায়েত প্রধান পলি পাল সেদিন উত্তরবঙ্গ সংবাদকে জানিয়েছিলেন খুব শীঘ্রই এই রাস্তার প্রাথমিক মেরামতি করে দেওয়া হবে।

সেই মোতাবেক মাত্র তিনদিন পরই রবিবার রাস্তার প্রাথমিক কাজ শুরু হয়। এদিন প্রধান পলি পাল আরও বলেন, আর সপ্তাহ খানেকের মধ্যে এই রাস্তায় ইটভাটার রাবিশ ফেলে কাদা মুক্ত করার চেষ্টা করা হবে। এর জন্য প্রয়োজনীয় টেন্ডার খুব শীঘ্রই করা হবে বোল্লা গ্রাম পঞ্চায়েত অফিসে। গ্রামবাসীদের পক্ষে রফিকুল সরদার বলেন, প্রধান কথা রাখায় আমরা খুশি। কিন্তু সবচেয়ে বেশি খুশি হবে এই এলাকার প্রতিটি মানুষ যেদিন সুদীর্ঘকালের জীবন যন্ত্রণার অবসান ঘটিয়ে পাকা রাস্তা তৈরি হবে। আমরা সেই দিনের অপেক্ষায় প্রহর গুনছি।