শালকুমারহাটে রাস্তার কাজের সূচনা, খুশি এলাকাবাসী

364

সুভাষ বর্মন, শালকুমারহাট: শালকুমারহাটে পাকা রাস্তার কাজের সূচনা হওয়ায় খুশি এলাকার মানুষ। মঙ্গলবার শালকুমার-১ গ্রাম পঞ্চায়েতের কালীবাড়ি মোড় থেকে ভালুকারপাড় পর্যন্ত প্রায় তিন কিলোমিটার রাস্তার কাজের সূচনা করেন আলিপুরদুয়ারের বিধায়ক সৌরভ চক্রবর্তী। স্থানীয়রা প্রায় কুড়ি বছর থেকে এই রাস্তাটি পাকা করার দাবি জানিয়ে আসছিলেন। এতদিনে দাবি পূরণ হওয়ায় তাঁরা এখন সন্তোষ প্রকাশ করেছেন।

জানা গিয়েছে, রাজ্য সরকারের ‘পথশ্রী অভিযান’ প্রকল্পের কর্মসূচির আওতায় শালকুমারহাটের এই রাস্তাটি পাকা তৈরি করা হচ্ছে। এতদিন এই বেহাল রাস্তার কারণে সমস্যায় ছিলেন মুন্সিপাড়া, সিধাবাড়ি, নতুনপাড়া সহ বেশ কিছু এলাকার মানুষ। কালীবাড়ি মোড়ে রয়েছে মুন্সিপাড়া প্রাথমিক স্বাস্থ্যকেন্দ্রে। মূলত চিকিৎসার কারণে ওইসব এলাকার মানুষ এই রাস্তা দিয়ে বেশি যাতায়াত করেন। পাথরের রাস্তার কারণে তাঁদের যাতায়াতে অসুবিধা হত। সংশ্লিষ্ট গ্রাম পঞ্চায়েতের জনপ্রতিনিধিরাও প্রশাসনের উপরমহলে এই রাস্তা পাকা করার দাবি বারবার জানিয়েছেন। এবার পথশ্রী অভিযানের আওতায় রাস্তাটি পাকা তৈরি করা হচ্ছে। এদিন এলাকায় এসে ফিতে কেটে রাস্তার কাজের সূচনা করেন আলিপুরদুয়ারের বিধায়ক সৌরভ চক্রবর্তী। এছাড়াও উপস্থিত ছিলেন শালকুমার-১ গ্রাম পঞ্চায়েতের প্রধান বাবুল কার্জি, উপপ্রধান গণপতি নার্জিনারি, তৃণমূল কংগ্রেসের শালকুমার-১ অঞ্চল সভাপতি শ্রীবাস রায় প্রমুখ।

- Advertisement -

বিধায়ক বলেন, ‘শালকুমারহাটে এদিন গুরুত্বপূর্ণ একটি রাস্তার কাজের সূচনা করা হল। বাসিন্দারা বহুবার আমাকে এই পাকা রাস্তার আবেদন জানিয়েছিলেন। এখন মুখ্যমন্ত্রীর পথশ্রী অভিযানের আওতায় দ্রুত এই রাস্তার কাজ শুরু হবে।’ শালকুমার-১ এর উপপ্রধান গণপতি নার্জিনারি বলেন, ‘এই রাস্তা দিয়ে কয়েক হাজার মানুষ যাতায়াত করেন। চিকিৎসার জন্যই রাস্তাটি খুব গুরুত্বপূর্ণ। এতদিন এটি ছিল গ্রাভেল রাস্তা। আমরা অনেকবার পাকা রাস্তার দাবি উপরমহলে জানিয়েছি। বিধায়কের তৎপরতায় এবার পাকা রাস্তার কাজ শুরু হচ্ছে। এলাকার কয়েক হাজার মানুষ এজন্য খুশি।’ বিধায়ক আরও জানান, এদিন আলিপুরদুয়ার-১ ব্লকের চকোয়াখেতি ও বিবেকানন্দ-১ গ্রাম পঞ্চায়েত এলাকাতেও পথশ্রী অভিযানের আওতায় আরও দুটি পাকা রাস্তার কাজের শিলন্যাস করা হয়।