এক সংসদের বোর্ড অন্য সংসদে লাগানোর অভিযোগ

100

ফুলবাড়ি, ৫ ফেব্রুয়ারিঃ এক সংসদ এলাকার বোর্ড অন্য সংসদ এলাকায় লাগিয়ে কাজ শুরু করা হচ্ছে। সেই সঙ্গে রাস্তা তৈরির জন্য নিম্নমানের বজরি ফেলা হচ্ছে। এই অভিযোগ এনে, শনিবার মাথাভাঙ্গা-২ ব্লকের বড় শৌলমারি গ্রাম পঞ্চায়েতের ২/৩৫ নম্বর বুথ, ৯ নম্বর সংসদের দেওয়ানবশ এলাকায় কংক্রিট ঢালাই রাস্তার কাজের জন্য বজরি ফেলার কাজ বন্ধ করে দিল বিজেপির স্থানীয় নেতারা।

জানা গিয়েছে, মাথাভাঙ্গা-২ পঞ্চায়েত সমিতির পক্ষ থেকে বড় শৌলমারি গ্রাম পঞ্চায়েতের দেওয়ানবশ ও মুকুলডাঙ্গা এলাকার একটি রাস্তার এক হাজার একশো মিটার এলাকা কংক্রিট ঢালাই করা হবে ১০০ দিনের কাজের মাধ্যমে। এই রাস্তা তৈরির কাজের বোর্ড লাগানো ও কাজের জন্য যে বজরি ফেলা হচ্ছে তা নিয়েই স্থানীয় বিজেপি নেতাদের আপত্তি। অভিযোগ, রাস্তার কাজের জন্য এক এলাকার বোর্ড অন্য এলাকায় লাগানো হয়েছে। সঙ্গে রাস্তার কাজের জন্য যে বজরি ফেলা হচ্ছে তাতে নিম্নমানের মাটি মেশানো রয়েছে।

- Advertisement -

বিজেপির স্থানীয় গ্রাম পঞ্চায়েত সদস্য সুশীল মণ্ডল বলেন, দুই সংসদ এলাকার মধ্যে একটি রাস্তা কংক্রিট ঢালাই করা হবে। রাস্তার বেশির ভাগই ৯ নম্বর সংসদ এলাকার। কিন্তু, ৯ নম্বর সংসদে ৮ নম্বর সংসদ এলাকার বোর্ড লাগিয়ে কাজ শুরু করা হচ্ছে বলে তাঁর অভিযোগ। সেই সঙ্গে রাস্তার কাজের জন্য এদিন যে বজরি ফেলা হয়েছে তাও নিম্নমানের। তিনি বলেন, ১০০ দিনের কাজের প্রকল্পে রাস্তা তৈরির কাজ হবে। আমরাও চাই এলাকার উন্নয়ণ হোক। সুশীল মণ্ডলের অভিযোগ, তাঁকে কিছু না জানিয়ে স্থানীয় তৃণমূল কংগ্রেস নেতারা নিজেদের মতো করে কাজের মাস্টার রোল তৈরি করেছে। এখানে ভুল কাজ শুরু হয়েছে। যার কারণে এদিন শুরুতেই রাস্তার কাজ বন্ধ করা হয়েছে। তিনি বলেন, এর একটা মীমাংসা হবে। তারপরই কাজ শুরু হবে।

এলাকা থেকে নির্বাচিত মাথাভাঙ্গা-২ পঞ্চায়েত সমিতির বিদ্যুৎ কর্মাধ্যক্ষ বাসন্তী বর্মন বলেন, পঞ্চায়েত সমিতি থেকে রাস্তাটি তৈরি করা হবে। তিনি বলেন, রাস্তার কাজের জন্য পঞ্চায়েত সদস্য সুশীল মণ্ডলের কাছে ফোন করে জব কার্ড ও জব কার্ডধারীদের নামের তালিকা চাওয়া হয়েছিল। কিন্তু তিনি দেননি। তিনি বলেন, একটা রাস্তা দুই সংসদ এলাকায় থাকলে, কাজের জন্য একটাই বোর্ড লাগানো হয়। বড় শৌলমারি গ্রাম পঞ্চায়েতের প্রধান মহাদেব বিশ্বাস বলেন, বিরোধীদের কাজই হল উন্নয়নমূলক কাজের বিরোধিতা করা।