মালদা, ২০ জুলাইঃ শনিবার দোষী শিক্ষকের শাস্তির দাবিতে পুরাতন মালদার জি কে হাইস্কুলের কয়েকশ পড়ুয়া প্রায় ঘন্টা দেড়েক ৩৪ নম্বর জাতীয় সড়ক অবরোধ করল। এর জেরে জাতীয় সড়কে ব্যাপক যানজটের সৃষ্টি হল। খবর পেয়ে ঘটনাস্থলে গিয়ে বিক্ষুব্ধ ছাত্রদের অবরোধ তুলে দেওয়ার চেষ্টা করেও, পুলিশ ব্যর্থ হয়। অবশেষে ২৪ ঘন্টার মধ্যে অভিযুক্ত শিক্ষককে গ্রেফতার করার আশ্বাস দিলে ছাত্রছাত্রীরা অবরোধ তুলে নেয়।

এই প্রসঙ্গে উল্লেখ্য, সম্প্রতি মালদার ওই বিদ্যালয়ের সপ্তম শ্রেণীর এক ছাত্রীকে ফাঁকা ক্লাসরুমে এক শিক্ষক আপত্তিকর ভিডিও দেখান। অভিযোগ ওই শিক্ষক ছাত্রীর শ্লীলতাহানীর করেন। ছাত্রীর পরিবার মালদা থানায় লিখিত অভিযোগ জমার পর আটচল্লিশ ঘণ্টা কাটলেও, অভিযুক্ত শিক্ষক তবুও ধরা পড়েননি। বরং তদন্তে পুলিশ অযথা বিলম্ব করছে। পাশাপাশি স্কুল কর্তৃপক্ষও বিষয়টি নিয়ে উদাসীন। আর এই অভিযোগ এনে পুরাতন মালদার ওই বিদ্যালয়ের ছাত্র-ছাত্রীরা এদিন জাতীয় সড়ক অবরোধ করে।

অবরোধকারী ছাত্র-ছাত্রীদের পক্ষে অঙ্কুর রজক, দীপঙ্কর বসাক, মোহাম্মদ সারেক, বৈদ্য কর্মকার, অনন্ত ঘোষ, বিপাশা পাল, সুইটি দাস জানান, ওই শিক্ষকের বিরুদ্ধে থানায় অভিযোগ দায়েরের পর ৪৮ ঘন্টা পেরোলেও, পুলিশ অভিযুক্ত শিক্ষককে গ্রেফতার করতে পারে নি। পুলিশ চব্বিশ ঘন্টার মধ্যে অভিযুক্তকে গ্রেফতার করবে জানালেও তা বাস্তবায়িত হয় নি। সেই কারণেই তারা এদিন জাতীয় সড়ক অবরোধ করেছিলেন।

অন্যদিকে পকসো ধারায় অভিযুক্ত শিক্ষকের বিরুদ্ধে অভিযোগ দায়ের করেছে পুলিশ। তদন্তে ঢিলেমির অভিযোগ অস্বীকার করে পুলিশ জানিয়েছে, ছাত্রীর মা তদন্তে ঠিকমতো সহযোগিতা করছেন না। এদিকে ঘটনার পর থেকেই অভিযুক্ত শিক্ষকের কোনও খোঁজ মেলেনি।

আরো পড়ুনঃ তৃণমূল-বিজেপি সংঘর্ষে আহত ১০