মদের দোকানে ডাকাতি, লুঠ লক্ষাধিক টাকার মদ

207

রাজা বন্দোপাধ্যায়, আসানসোল: আসানসোল দক্ষিণ থানার মহিশিলা কলোনির শালবনিতে বৃহস্পতিবার গভীর রাতে তিন সশস্ত্র দুষ্কৃতি একটি মদ বিক্রির দোকানে হানা দেয়। তারা বন্দুক দেখিয়ে দোকানের কর্মীদের থেকে চাবি নিয়ে লক্ষাধিক টাকার দেশি ও বিদেশি মদ নিয়ে পালিয়ে যায়। খবর পেয়ে এলাকায় যায় আসানসোল দক্ষিণ থানার পুলিশ। অভিযোগের ভিত্তিতে পুলিশ তদন্ত শুরু করেছে। প্রসঙ্গত, কয়েক মাস আগেই এই দোকান থেকে একইভাবে দুষ্কৃতীরা মদ লুঠ করে পালিয়ে গেছিল।

আবগারি দপ্তরের পশ্চিম বর্ধমান জেলার সুপারিন্টেন্ডেন্ট তুহিন নাগ শুক্রবার জানিয়েছেন, দপ্তরের আধিকারিককে ঐ দোকানে পাঠিয়ে তদন্ত করতে বলা হয়েছে। তিনি আমাকে রিপোর্ট দেবেন। ঐ মদের দোকানের এক কর্মী মনবোধ মণ্ডল বলেন, রাতে আমি ও আমার ভাগ্নে বৃহস্পতিবার রাতে দোকানে ছিলাম। ভাগ্নে খাবার খেয়ে ফোনে কথা বলছিলো। রাত একটা নাগাদ আচমকাই দোকানের মধ্যে তিন জন হুড়মুড়িয়ে ঢুকে পড়ে। তাদের হাতে হাঁসুয়া ও বন্দুক ছিল। বন্দুক দেখিয়ে তারা ভাগ্নেকে নিয়ে গিয়ে চাবি খুলিয়ে ছয় পেটি দেশী মদ ও প্রচুর পরিমানে বিদেশি মদের বোতল নিয়ে চলে যায়। যাওয়ার আগে দূষ্কৃতিরা আমাদেরকে দোকানের ভেতরে ঢুকিয়ে দিয়ে বাইরে থেকে দরজা বন্ধ করে দেয়। যাওয়ার সময় তারা মোবাইল নিয়ে যায়।

- Advertisement -

তিনি আরো বলেন, কিছুদিন আগেই রাতে একইভাবে এই দোকান থেকে দুষ্কৃতীরা মদ নিয়ে চলে গিয়েছিল। বর্তমানে এই মদের দোকান যিনি চালান, সেই সুধাময় মন্ডল বলেন, হাঁসুয়া ও বন্দুক নিয়ে দুষ্কৃতীরা দোকানে ঢুকে পড়েছিলো। রাতে দোকানে থাকা দুজনের কাছ থেকে তারা চাবি নিয়ে খুলে লক্ষাধিক টাকার দেশি ও বিদেশি মদের বোতল নিয়ে চলে গেছে। বেশকিছু টাকাও দুষ্কৃতিরা নিয়ে গেছে। পুলিশকে লিখিতভাবে গোটা ঘটনার কথা জানিয়েছি। পুলিশ এসেছিলো। তদন্ত শুরু করেছে। আসানসোল দক্ষিণ থানার পুলিশের পক্ষ থেকে অবশ্য বলা হয়েছে, দোকান মালিকের তরফে দোকানে একটি চুরির অভিযোগ দায়ের করা হয়েছে। পুলিশ এলাকায় গিয়ে তদন্ত শুরু করেছে।