রুটদের ইনটেন্ট নিয়ে খোঁচা হিটম্যানের

আহমেদাবাদ : আচমকা পেয়ে যাওয়া ছুটি!

জৈব সুরক্ষা বলয় থেকে বার হওয়ার উপায় নেই। তাই হঠাৎ পাওয়া ছুটির আমেজে সারাদিন ধরে নিজেদের মধ্যে গল্প, আড্ডা দিয়ে কাটালেন ভারতীয় ক্রিকেটাররা।

- Advertisement -

দেড় দিনে নরেন্দ্র মোদি স্টেডিয়ামে গোলাপি টেস্ট শেষ হয়ে গিয়েছে। কোহলির ভারত সিরিজে ২-১ ব্যবধানে এগিয়ে গিয়েছে। মোতেরায় শেষ টেস্ট শুরু ৪ মার্চ। ফলে পূর্ণ বিশ্রাম নেওয়ার দারুণ সুযোগ টিম ইন্ডিয়ার সদস্যদের জন্য। শেষ টেস্টের দিকে ফোকাস রাখার পাশে বিশ্ব টেস্ট চ্যাম্পিয়ানশিপ ফাইনালের সম্ভাবনাও উজ্জ্বল হয়ে উঠেছে ভারতের। যা নিয়ে টিম ইন্ডিয়ার অন্দরে চর্চাও শুরু হয়েছে বলে খবর।

বাইরের দুনিয়ায় দিন-রাতের টেস্টের পিচ নিয়ে ধুন্ধুমার বিতর্ক চলছে। এমন উইকেট টেস্টের জন্য ভালো বিজ্ঞাপন নয়, বিশেষজ্ঞদের একটা বড়ো অংশ এমন রায় দিয়েছেন। দুনিয়ার নানা প্রান্ত থেকে আসছে পিচ নিয়ে মন্তব্য। কেউ ব্যাটসম্যানদের টেকনিক নিয়ে প্রশ্ন তুলছেন, আবার কারোর মনে হচ্ছে মোতেরার বাইশ গজ টেস্ট ক্রিকেটকে পিছিয়ে দিতে পারে। প্রাক্তন ভারত অধিনায়ক মহম্মদ আজহারউদ্দিন আজ স্পষ্ট করেছেন, মোতেরার মতো বাইশ গজে সফল হতে হলে ব্যাটসম্যানদের সঠিক ফুটওয়ার্ক ও শট বাছাইয়ে ব্যাপারে সতর্ক থাকতে হবে। না হলেই ইংল্যান্ডের মতো হাল হবে সবার।

পিছিয়ে পড়ার পরও ঘুরে দাঁড়িয়ে সিরিজে লিড পেয়ে যাওয়া টিম ইন্ডিয়া এখন বাইরের দুনিয়ার এসব ভাবনা ও পরামর্শকে পাত্তা দিতে নারাজ। বরং পুরো দল মজে রয়েছে ৭৭ টেস্টে ৪০০ উইকেট ক্লাবের নয়া সদস্য রবিচন্দ্রন অশ্বীনকে নিয়ে। বিরাট কোহলি ইতিমধ্যেই অশ্বীনকে কিংবদন্তি আখ্যা দিয়েছেন। অভিনন্দনের জোয়ারে ভাসতে থাকা ভারতীয় অফস্পিনার আজ বোর্ডের ওয়েবসাইটে সাক্ষাৎকার দিয়েছেন। নিজের ক্রিকেটার হয়ে ওঠার ব্যাপারে অশ্বীন বলেন, দুর্ঘটনাক্রমে আজ আমি একজন ক্রিকেটার। আসলে আমি ছিলাম আদ্যন্ত ক্রিকেটপ্রেমী। ক্রিকেটার হওয়ার স্বপ্ন দেখতাম। ভাবতাম জাতীয় দলের হয়ে খেলার সুযোগ পেলে কেমন হবে। আজ সবই বাস্তব আমার জীবনে। কখনও ভাবিনি আজকের জায়গায় পৌঁছাতে পারব।

নিজের জীবন, কেরিয়ার নিয়ে অশ্বীন যখন আবেগে ভাসছেন। তখন ভারতীয় দলের ওপেনারের গলায় ভিন্ন সুর। গতরাতে মোতেরায় ইংল্যান্ডের বিরুদ্ধে ১০ উইকেটে জয়ের পর ভার্চুয়াল সাংবাদিক সম্মেলনে হাজির হয়েছিলেন রোহিত শর্মা। নরেন্দ্র মোদি স্টেডিয়ামের বাইশ গজে একমাত্র ব্যাট হাতে তাঁকেই সাবলীল দেখিয়েছিল। প্রথম ইনিংসে ৬৬ ও দ্বিতীয় ইনিংসে অপরাজিত ২৫ করা হিটম্যান জো রুটদের ব্যাটিং ইনটেন্ট নিয়ে প্রশ্ন তুলেছেন। রোহিতের কথায়, এমন পিচে রান করার পজিটিভ ইনটেন্ট থাকা খুব প্রযোজন। শুধু ডিফেন্স করে এমন বাইশ গজে সফল হওয়া যাবে না। রানের চেষ্টা করতেই হবে। সেই চেষ্টা সবাই করেছে বলে তো মনে হয় না।

একবারও ইংল্যান্ডের কোনও ব্যাটসম্যানের নাম করেননি রোহিত। কিন্তু প্রতিটা শব্দের মাধ্যমে রুটদের খোঁচা দিতে ছাড়েননি তিনি। হিটম্যানের কথায়, ইন্টারেস্টিং পিচ ছিল। এমন বাইশ গজে আমি পজিটিভ ইনটেন্ট নিয়ে রানের চেষ্টা করেছি। সঙ্গে ভালো ডেলিভারির সম্মানও দিয়েছি। আমার অন্তত মনে হয়নি পিচ ব্যাটিংয়ের জন্য খারাপ। গোলাপি টেস্টে ইংল্যান্ডের দখল নেওয়ার পর কোহলির কথার প্রতিধ্বনি একটু অন্যভাবে শোনা গিয়েছে রোহিতের মধ্যে।

এদিকে, আজ প্রাক্তন ইংল্যান্ড অধিনায়ক অ্যালিস্টার কুক কোহলির ব্যাটিংয়ে জন্য ভালো পিচ কথার পালটা দিয়েছেন। ইংল্যান্ডের এক চ্যানেলে সাক্ষাত্কারে কুক বলেন, বিসিসিআইকে আড়াল করার জন্যই যেন কোহলি পিচকে ভালো বলেছে বলে মনে হল। কিন্তু আদতে এমনটা ছিল না। ব্যাটিংয়ে জন্য খুব কঠিন উইকেট ছিল মোতেরায়।