চালসায় হরিণ দেখতে ভিড় স্থানীয়দের

263

চালসা: সাতসকালে লোকালয়ে সাম্বার প্রজাতির হরিণ আসাকে কেন্দ্র করে চাঞ্চল্য ছড়িয়ে পড়লো সমগ্র এলাকায়। শুক্রবার সকালে ঘটনাটি ঘটে মেটেলি ব্লকের গরুমারা জঙ্গল সংলগ্ন দক্ষিণ ধূপঝোরার মনস্বর পাড়া এলাকায়। খবর পেয়ে এলাকায় আসেন খুনিয়া স্কোয়াড ও ধূপঝোরা বিটের বনকর্মীরা। জানা গিয়েছে, এদিন ভোরে গরুমারা জঙ্গল থেকে দুটি সম্বর হরিণ মূর্তি নদী পেরিয়ে আসে ওই এলাকায়। একটি হরিণ জঙ্গলে চলে গেলেও অপর স্ত্রী পূর্ণবয়স্ক একটি সাম্বার আটকে পড়ে যায় এলাকায়।

প্রথমে সেটি এলাকার একটি বেসরকারি রিসোর্টের পাশে চলে আসে। সেখান থেকে রাস্তায় চলে আসে। বেলা বাড়ার সঙ্গে সঙ্গে সম্বর হরিণটিকে দেখতে এলাকায় মানুষের ভিড় উপচে পরে। এরপর সেটি এলাকার রাজেন রায়ের বাড়িতে ঢুকে পড়ে। সেখানে মানুষের ভিড় হওয়ায় সেটি চলে যায় মনস্বর পাড়ার পুকলি ওঁরাও এর বাড়ির গোয়াল ঘরে। দীর্ঘক্ষণ সেটি গোয়াল ঘরে বসে আশ্রয় নেয়। গোয়াল ঘর থেকে যাতে সম্বরটি পালাতে না পারে তার জন্য বনকর্মীরা জাল দিয়ে গোয়াল ঘরটি ঘিরে রাখে।

- Advertisement -

এখন সেটি ওই গোয়াল ঘরেই আশ্রয় নিয়ে রয়েছে। এলাকায় যান খুনিয়া স্কোয়াডের রেঞ্জার রাজকুমার লায়েক, ধূপঝোরার বিট অফিসার স্মৃতি রাই। রাজকুমার লায়েক বলেন, ‘অত্যধিক ছোটাছুটি জন্য সাম্বারটি ক্লান্ত হয়ে পড়ে। তাকে যাতে কেউ বিরক্ত না করতে পারে তার জন্য জাল দিয়ে ঘিরে রাখা হয়েছে। লোকজনের ভিড় সরিয়ে দেওয়া হচ্ছে। আমরা সেটিকে ড্রাইভ করে জঙ্গলে পাঠানোর চেষ্টা করব। ট্রানকুইলাস টিমকে ডাকা হয়েছে। পরিস্থিতি অনুযায়ী ব্যবস্থা নেওয়া হবে।’ উল্লেখ্য, গরুমারা জঙ্গল এলাকায় প্রায়শই বন্যপ্রাণীরা দক্ষিণ ধূপঝোরা এলাকায় চলে আসে।