লকডাউনেও তোর্ষার চর থেকে অবাধে বালি উত্তোলন

201

ফেশ্যাবাড়ি: লকডাউনেও সরকারি রাজস্ব ফাঁকি দিয়ে ট্রাক্টর ও ট্রলিতে করে রোজই বালি তোলা হচ্ছে। নদীর বাঁধ ক্ষতিগ্রস্ত হওয়ার সম্ভাবনা প্রবল রয়েছে। মাথাভাঙ্গা-২ ব্লকের প্রেমেরডাঙ্গা গ্রাম পঞ্চায়েতের খট্টিমারি বাজার সংলগ্ন তোর্ষা নদীর চরে প্রতিদিন ঘটছে এ ধরনের ঘটনা। সবকিছু জেনেও চুপ স্থানীয় পুলিশ প্রশাসন। অবিলম্বে প্রশাসনকে ব্যবস্থা গ্রহণের আর্জি জানিয়েছেন স্থানীয়রা। ভূমি ও ভূমি সংস্কার দপ্তর সূত্রে জানা গিয়েছে, ওই জায়গা থেকে কাউকে বালি তোলার অনুমতি দেওয়া হয়নি।

স্থানীয় বাসিন্দাদের অভিযোগ, লকডাউন চলাকালীন প্রতিদিন ভোর থেকে শুরু করে সকাল পর্যন্ত অবাধে বালি তোলা হচ্ছে। সামাজিক দূরত্ব বজায় না রেখে শ্রমিকদের দিয়ে বালির কাজ করানো হচ্ছে। রাস্তাঘাট ধুলোয় ঢেকে যাচ্ছে। বৃষ্টি হলেই রাস্তায় কাদা হচ্ছে। সবকিছু জেনেও নীরব স্থানীয় প্রশাসন। চড়া দামে বিক্রি হচ্ছে বালি। যার ফলে মোটা অঙ্কের রাজস্ব ঘাটতি হচ্ছে। অবিলম্বে প্রশাসনের কাছে ব্যবস্থা গ্রহণের আর্জি জানিয়েছেন স্থানীয়রা।

- Advertisement -

এ ব্যাপারে মাথাভাঙ্গা-২ ব্লকের ভূমি ও ভূমি সংস্কার আধিকারিক (বিএলএলআরও) অভিষেক প্রসাদ চৌধুরী বলেন, ‘বিষয়টি আমার জানা নেই। ওই জায়গা থেকে কাউকে বালি তোলার অনুমতি দেওয়া হয়নি। যদি কেউ তোলেন তবে তা সম্পূর্ণ বেআইনি ও শাস্তিযোগ্য অপরাধ। দপ্তরের তরফে সর্বত্র বেআইনি বালি মাফিয়াদের বিরুদ্ধে অভিযান চলছে। ওই জায়গা থেকে গতবছর বালি চোরদের ধরা হয়েছিল। ফের অভিযান চালানো হবে।’