সন্ত্রাসের অভিযোগ সায়ন্তনের, কী বললেন রবীন্দ্রনাথ

149

তুফানগঞ্জ: ভোট গণনার দিন থেকে তুফানগঞ্জ মহকুমা সহ কোচবিহার জেলা জুড়ে রাজনৈতিক সংঘর্ষ লেগেই রয়েছে। গেরুয়া ও সবুজ শিবিরের অভিযোগ পালটা অভিযোগে সরগরম কোচবিহার জেলা। এমন অবস্থায় ক্ষতিগ্রস্ত বিজেপি কর্মীদের সঙ্গে দেখা করলেন বিজেপির রাজ্য সাধারণ সম্পাদক সায়ন্তন বসু। মঙ্গলবার বিকালে তিনি তুফানগঞ্জ শহরের ৫ ওয়ার্ড ও নাককাটিগাছ গ্রাম পঞ্চায়েতের কামাত ফুলবাড়ী গ্রামের ২০৫ বুথে যান। তার সঙ্গে ছিলেন বিজেপির জেলা সভানেত্রী তথা তুফানগঞ্জের বিধায়ক মালতি রাভা রায় সহ একাধিক বিজেপি নেতারা। এদিন সায়ন্তন বাবু ক্ষতিগ্রস্ত বিজেপি কর্মীদের সঙ্গে কথা বলেন। তাদের সমস্যার কথা শোনেন। কর্মীরা সায়ন্তনবাবুর কাছে তাদের উপর হওয়া অত্যাচারের কথা জানান। এরই সঙ্গে তারা অভিযোগ করেন, তৃণমূলের এক ব্যক্তি তাদের কাছে থেকে বিজেপি করার জন্য টাকাও আদায় করেছেন।

সন্ত্রাসের অভিযোগ সায়ন্তনের, কী বললেন রবীন্দ্রনাথ| Uttarbanga Sambad | Latest Bengali News | বাংলা সংবাদ, বাংলা খবর | Live Breaking News North Bengal | COVID-19 Latest Report From Northbengal West Bengal India

- Advertisement -

এরপর সায়ন্তন বাবু সাংবাদিকদের বলেন, তৃণমূল আশ্রিত দুষ্কৃতীরা কিভাবে বিজেপি কর্মীদের ওপর তাণ্ডব চালিয়েছে তা বোঝাই যাচ্ছে। বিজেপি কর্মীদের হুমকি দিয়ে টাকাও নেওয়া হচ্ছে। এই ব্যাপারে প্রশাসন কেনো পদক্ষেপ নিচ্ছে সেই নিয়েও প্রশ্ন তুলেছেন তিনি।  এরপর তিনি কোচবিহারের দিকে রওনা দেন। এবিষয়ে তৃণমূলের রাজ্য সহ সভাপতি তথা প্রাক্তন উত্তরবঙ্গ উন্নয়ন মন্ত্রী রাবিন্দ্রনাথ ঘোষ বলেন, ‘তৃণমূল নয়, বিজেপি কর্মীরাই খুন, আগুন লাগানোর মতো ঘটনা ঘটাচ্ছে। চিলাখানায় শানিনুর রহমান কে খুন করেছে বিজেপি আশ্রিত দুষ্কৃতীরা। এছাড়াও কয়েকজন কে ঘায়েল করছে। সোমবার রাতে এক তৃণমূল কর্মীর পুকুর দেখা শোনা করার জন্য তৈরী করা ঘরে আগুন লাগিয়ে দেওয়া হয়েছে। কোন মুখে সায়ন্তন বসু একথা বলেন জানি না । বরং তারাই এসব কাজ করছেন।‘