ডিসইনফেকশন টানেল বন্ধের নির্দেশ সুপ্রিম কোর্টের

301

নয়াদিল্লি: করোনা রুখতে চালু হওয়া ডিসইনফেকশন টানেল বন্ধ করতে হবে। বৃহস্পতিবার কেন্দ্রকে সুপ্রিম কোর্ট নির্দেশ দিয়েছে ডিসইনফেকশন টানেল আগামী একমাসের মধ্যে বন্ধ করতে হবে। এক জনস্বার্থ মামলায় এদিন বিচারপতি অশোক ভূষণের নেতৃত্বাধীন শীর্ষ আদালতের ডিভিশন বেঞ্চ ফিউমিগেশন বন্ধ করার নির্দেশিকা কেন্দ্রকে অবিলম্বে জারি করতে বলেছে। ডিসইনফেকশন টানেলে ‘ফিউমিগেশন, অতিবেগুনি রশ্মির ব্যবহার আর নয়। রাসায়নিক প্রয়োগে শারীরিক, মানসিক স্বাস্থ্যের ক্ষতি হয় বলে শীর্ঘ আদালত জানিয়েছে।

করোনা রুখতে চালু হওয়া ডিসইনফেকশন টানেল নিয়ে আইনের ছাত্র গুরসিমরণ সিংহ নারুলা একটি জনস্বার্থ মামলা দায়ের করেছিল। সেই মামলার শুনানি চলছিল। তিনি জীবাণুমুক্ত করার উদ্দেশ্যে জৈবিক জীবাণুনাশক স্প্রে বা ফিউমিগেশন করার জন্য নির্মিত টানেলের ব্যবহার থেকে শুরু করে গঠন, নির্মাণ ও প্রচার নিষিদ্ধ করার আর্জি জানান।

- Advertisement -

গুরসিমরণ সিংহ নারুলা আবেদনে বলেন, কোভিড-১৯ রোধ করার অছিলায়, অনেক স্যানিটাইজেশন ও জীবাণুমুক্ত করার মাধ্যম বাজারে এসেছে, যেগুলি করোনাভাইরাস আটকানোর মিথ্যে দাবি করে আসছে। বিশ্ব স্বাস্থ্য সংস্থা (হু) এই মাধ্যমগুলির অকার্যকারিতা এবং ক্ষতিকারক পরবর্তী প্রতিক্রিয়া সম্পর্কে সতর্ক করেছে। অন্যদিকে, ডিসইনফেকশন টানেলের ফলে মানুষের ত্বক অতিবেগুনী রশ্মির সংস্পর্শে আসে। সকলে ভাবেন, তাঁরা জীবাণুমুক্ত হচ্ছেন। কিন্তু, আদতে ক্ষতি হচ্ছে।