লিভারপুল, বার্সেলোনা ম্যাচে নেই র‌্যামোস

মাদ্রিদ : চ্যাম্পিয়ন্স লিগের কোয়ার্টার ফাইনালে সার্জিও র‌্যামোস-মহম্মদ সালাহ দ্বৈরথ হচ্ছে না।

বাঁ-পায়ে পেশির চোটে কাবু রিয়াল মাদ্রিদ অধিনায়ক। ফলে ৬ এপ্রিল চ্যাম্পিয়ন্স লিগের শেষ আটে লিভারপুলের বিরুদ্ধে গুরুত্বপূর্ণ ম্যাচে খেলতে পারছেন না র‌্যামোস। এমনকি ফিরতি লেগেও তাঁকে পাচ্ছে না রিয়াল শিবির। শুধু তাই নয়, ১০ এপ্রিল লা লিগায় বার্সেলোনার বিরুদ্ধে এল ক্লাসিকো-তেও নেই র‌্যামোস। মরশুমের গুরুত্বপূর্ণ সময়ে অভিজ্ঞ এই ডিফেন্ডারকে না পাওয়া বড় ধাক্কা, মানছে লস ব্ল্যাঙ্কোস শিবির।

- Advertisement -

জাতীয় দলের হয়ে খেলার সময় পায়ে চোট পান ৩৫ বছরের র‌্যামোস। কবে মাঠে ফিরতে পারবেন স্প্যানিশ ডিফেন্ডার, সেটাও স্পষ্ট নয়। ইনস্টাগ্রামে র‌্যামোস বলেছেন, দলকে মাঠে নেমে সাহায্য করতে পারব না ভেবে খুব খারাপ লাগছে। সামনে বেশ কয়েকটি গুরুত্বপূর্ণ ম্যাচ রয়েছে। মাঠের বাইরে বসে দলকে সমর্থন করা ছাড়া আমার অন্য কোনও উপায় নেই। কাতার বিশ্বকাপের কোয়ালিফায়ার পর্বে গ্রিসের বিরুদ্ধে প্রথম ৪৫ মিনিট মাঠে ছিলেন র‌্যামোস। জর্জিয়া ম্যাচে না খেললেও কসোভোর বিরুদ্ধে দ্বিতীয়ার্ধে অল্প সময় খেলেন তিনি। তারপরে বাঁ-পায়ের পেশিতে যন্ত্রণা টের পান র‌্যামোস। বাঁ-হাঁটুতে অস্ত্রোপচারের জন্য মরশুমের মাঝপর্বে মাঠের বাইরে ছিলেন রিয়াল তারকা। সেই সমস্যা কাটতে না কাটতে ফের চোটের কবলে র‌্যামোস। সবমিলিয়ে সময় মোটেই ভালো যাচ্ছে না স্প্যানিশ তারকার।

মাঠের মতো মাঠের বাইরেও সমস্যা পিছু ছাড়ছে না র‌্যামোসের। সদ্য ওটিটি প্ল্যাটফর্মে মুক্তি পেয়েছে র‌্যামোসের ওপর তথ্যচিত্রের দ্বিতীয়ভাগ। সেখানে তুলে ধরা হয়েছে বার্সেলোনার নবনিযুক্ত সভাপতি জুয়ান লাপোর্তার নির্বাচনী প্রচারকে। তথ্যচিত্রে কাতালানে লেখা একটি ব্যানারের বানান ভুল নিয়ে তৈরি হয়েছে বিতর্ক। যার জেরে বার্সা সমর্থকদের বিদ্রুপের মুখে পড়তে রয়েছে রিয়াল অধিনায়ক র‌্যামোসকে।

এদিকে র‌্যামোসকে ছাড়া শনিবার লা লিগায় এইবারের বিরুদ্ধে নামছে জিনেদিন জিদানের দল। সামনে কঠিন পরিস্থিতি থাকলেও রিয়াল মাদ্রিদ লা লিগা ও চ্যাম্পিয়ন্স লিগ খেতাবের লক্ষ্যে ঝাঁপাতে তৈরি বলে জানিয়েছে রিয়াল তারকা ক্যাসেমিরো। তিনি বলেছেন, আমরা কী করতে পারি, তা সকলেই জানে। শেষ মুহূর্ত পর্যন্ত আমাদের লড়তে হবে। রিয়াল মাদ্রিদের জন্য প্রতিটি ম্যাচ এখন গুরুত্বপূর্ণ।