শা’র মোকাবিলায় মমতাকে পরামর্শ পাওয়ারের

250

নিউজ ব্যুরো : স্বরাষ্ট্রমন্ত্রী অমিত শা’কে কীভাবে মোকাবিলা করতে হবে, সেবিষয়ে মুখ্যমন্ত্রী মমতা বন্দ্যোপাধ্যায়কে পরামর্শ দিলেন এনসিপি সুপ্রিমো শারদ পাওয়ার। নতুন বছরের শুরুতেই শারদ পাওয়ার কলকাতায় এসে তৃণমূল নেত্রীর সঙ্গে আরও একদফা আলোচনা করবেন বলে জানা গিয়েছে। তৃণমূল সূত্রের খবর, তাঁরা যৌথভাবে কলকাতায় একটি জনসভাও করতে পারেন। ইতিমধ্যেই শারদ পাওয়ারের পরামর্শ মুখ্যমন্ত্রী মমতা বন্দ্যোপাধ্যায় শুনেছেন। তাঁরা মতবিনিময়ও করেছেন। প্রসঙ্গত, মমতা বন্দ্যোপাধ্যায় এবং শারদ পাওয়ার দুজনেই কংগ্রেসে ছিলেন। তাঁরা দুজনেই কংগ্রেস ত্যাগ করে পৃথক দল গঠন করেছেন। মহারাষ্ট্রে সরকার গঠনে শারদ পাওয়ারের গুরুত্বপূর্ণ ভমিকা ছিল। বিজেপিকে ঠেকিয়ে শিবসেনা প্রধান উদ্ধব ঠাকরেকে মুখ্যমন্ত্রী পদে বসানোয় গুরুত্বপূর্ণ ভূমিকা ছিল তাঁর।

শারদ পাওয়ার মনে করছেন, তৃতীয়বারের জন্য মমতাকে মুখ্যমন্ত্রী হিসাবে ফিরতে হলে বেশ কিছু পদক্ষেপ করতে হবে। আগামী জানুয়ারিতে বিজেপির চাণক্য ফের রাজ্যে আসতে পারেন। তৃণমূল সূত্রে খবর, পাওয়ার পরামর্শ দিয়েছেন, তার আগে অমিত শা’র বিরুদ্ধে মমতা যেন প্রকাশ্য সভায় সুর নরম করেন। তাঁর দ্বিতীয় পরামর্শ, একইসঙ্গে মমতা প্রকাশ্যে ঘোষণা করুন যে, তাঁর পরিবারের কেউ মুখ্যমন্ত্রী পদের দাবিদার নন। স্বরাষ্ট্রমন্ত্রী ইতিমধ্যেই মমতার বিরুদ্ধে পরিবারতন্ত্রে মদত দেওয়ার অভিযোগ এনেছেন। মমতা এই ঘোষণা করলে তাঁর বিরুদ্ধে আনা অভিযোগ অনেকটাই লঘু হয়ে যাবে বলে পাওয়ার মনে করছেন। সম্প্রতি দেখা যাচ্ছে, তৃণমূলের কিছু গুরুত্বপূর্ণ নেতা দলবদল করে বিজেপিতে যোগ দিচ্ছেন। এই পরিস্থিতিতে বিরোধী ঐক্য স্পষ্ট করতে শারদ পাওয়ার কলকাতায় সভা করতে আসছেন বলে রাজনৈতিক মহল মনে করছে।

- Advertisement -

সম্প্রতি হায়দরাবাদে পুরনিগমের নির্বাচনে বিজেপির উত্থান উল্লেখযোগ্য। সেখানকার মুখ্যমন্ত্রী কে চন্দ্রশেখর রাও (কেসিআর)-এর পার্টি প্রথম স্থান পেলেও বিজেপি অনেক আসন বাড়িয়ে নিয়েছে। এই অবস্থায় বিরোধী ঐক্যকে আরও জোরদার করতে শারদ পাওয়ার উল্লেখযোগ্য ভূমিকা নিচ্ছেন বলে জানা গিয়েছে।