কোভিড ভ্যাকসিন বানাতে হাঙর নিধন

467

মানুষ বাঁচাতে তবে কি হাঙরে কোপ? হাঙর নিয়ে কাজ করা একটি দলের অন্তত এমনই আশঙ্কা। বিশ্বজোড়া করোনা আতঙ্কের মাঝে যখন পৃথিবীর প্রতিটি প্রান্তের বিজ্ঞানীরা করোনা টিকা আবিষ্কারের জন্য প্রাণপাত পরিশ্রম করছেন, ঠিক সেই সময় সার্ক অ্যালিজ নামের ক্যালিফোর্নিয়ার একটি গ্রুপের দাবি, গোটা বিশ্বের মানুষের জন্য করোনা টিকা প্রস্তুত করতে অন্তত পাঁচ লক্ষ হাঙর নিধনের প্রয়োজন হবে। কেন এমন আশঙ্কা?

কোভিড মোকাবিলার প্রধান অস্ত্র হল, মানুষের শরীরের প্রতিরোধ ক্ষমতা বৃদ্ধি করা। হাঙর থেকে পাওয়া একপ্রকার তেল এই প্রতিরোধ ক্ষমতা বৃদ্ধিতে একান্ত সহায়ক। এই প্রাকৃতিক তেলকে স্ক্যালেন বলে। এই স্ক্যালেন শক্তিশালী প্রতিরোধ ক্ষমতা তৈরি করে ভ্যাকসিনের কার্যকারিতা বাড়িয়ে তোলে। এক টন স্ক্যালেন সংগ্রহের জন্য প্রায় ৩,০০০ হাঙরের প্রয়োজন হয়। দলটির দাবি, স্ক্যালেন যুক্ত কোভিড টিকা গোটা বিশ্বের মানুষকে এক ডোজ করে দিতে হলে প্রায় আড়াই লাখ হাঙরের প্রয়োজন হবে। সেই ডোজ দ্বিগুণ হলে পরিমাণটা পাঁচ লাখে গিয়ে দাঁড়াবে। তাদের মতে, সমৃদ্ধ স্ক্যালেন পাওয়ার লক্ষ্যে গাপ্লার এবং বাস্কিং প্রজাতির হাঙরকে নিশানা করা হয়েছে, যাদের সংখ্যা কমে আসছে এবং সেগুলি লুপ্ত হয়ে যাওয়ার আশঙ্কা রয়েছে।

- Advertisement -

হাঙর-দরদি পক্ষের মত অনুযায়ী, কোনও উপাদান তৈরির জন্য একটা প্রজাতিকে ধ্বংস করা কখনোই মেনে নেওযা যায় না। একটি মার্কিন ওয়েসাইট সাক্ষাৎকারে দলটির প্রতিষ্ঠাতা এবং কার্যনির্বাহী পরিচালক স্টারফানি ব্রেন্ডল বলেন, বন্যপ্রাণ থেকে কোনও উপাদান সংগ্রহ করতে তার হত্যা কখনোই মেনে নেওয়া যায় না। বিশেষ করে যদি সেটি ক্রমে সংখ্যায় কমে আসে। আমরা এখনও জানি না এই মারণ ভাইরাসের প্রকৃতি কী? এটি কতদিন পর্যন্ত থাকবে? এটি আর কোনও নতুন রূপে আসবে কি না? অথচ আমরা যদি নির্বিচারে এটি প্রতিরোধে হাঙর নিধন করতে থাকি, তাহলে অচিরেই এই প্রজাতিটি বিলুপ্ত হয়ে যাবে। হাঙরের বিলুপ্তি ঠেকাতে বিজ্ঞানীরা অবশ্য ইতিমধ্যেই স্ক্যালেনের বিকল্প হিসেবে আখ থেকে তৈরি একটি সিন্থেটিকের খোঁজ করছেন। একটি হিসেব বলছে, প্রতি বছর প্রায় ৩০ লক্ষ হাঙর শিকার করা হয় স্ক্যালেনের জন্য, যা থেকে মেশিন তেল ছাড়াও বিভিন্ন ধরনের প্রসাধন সামগ্রী তৈরি করা হয়। আশঙ্কা তৈরি হয়েছে, এই তেলের চাহিদা হঠাৎ বিপুল পরিমাণ বেড়ে গেলে হাঙরের সংখ্যা সংকটজনক হয়ে যাবে, এমনকি গোটা প্রজাতিটাই বিলুপ্ত হয়ে যেতে পারে।