ত্রিশুলেশ্বর ধামে শিব চতুর্দশীতে মাতেন স্থানীয়রা

98

জটেশ্বর: শিব চতুর্দশী উপলক্ষ্যে ফালাকাটা ব্লকের ধনীরামপুর গ্রামে ত্রিশুলেশ্বর ধামে প্রতিবছরই বসে তিনদিন ব্যাপী মেলা। এই মেলার প্রথমদিন ত্রিশুলেশ্বর দেবের মাথায় জল ঢেলে এরপর চলে নাম-কীর্তন। এই তিনদিন ব্যাপী অনুষ্ঠানের অপেক্ষায় থাকেন এলাকার মানুষ।

জানা গিয়েছে, এই মেলা ও পুজো পরিচালনা করেন এলাকার দিব্যনারায়ণ স্মৃতি সংঘের সদস্যরা। মেলার দিন যতই এগিয়ে আসছে ততই ব্যস্ততাও বাড়ছে সদস্যদের মধ্যে। বর্তমানে ক্লাবের সদস্যরা দিন-রাত পরিশ্রম করে মন্দির পরিষ্কার সহ মন্দিরকে সাজিয়ে তুলছেন। স্থানীয় বাসিন্দা তথা মেলা পুজো কমিটির উদ্যোক্তা পবিত্র কুমার রায় জানান, এই পুজো এবার ৩৩ বছরে পর্দাপন করবে। জাতি-ধর্ম-বর্ণ নির্বিশেষে বাসিন্দারা এই মেলায় উপস্থিত হন। তিনি জানান, এই পুজোকে তাঁরা আরও এগিয়ে নিয়ে যেতে চান।

- Advertisement -

মেলা কমিটি ও স্থানীয় সূত্রে জানা গিয়েছে, ৩৩ বছর আগে এলাকার সেতু তৈরির সময় এক শিবলিঙ্গ রূপি নুড়িকে দেবতা হিসেবে পুজো শুরু হয়। পরে ধীরে ধীরে লোক মুখে প্রচার হতে থাকে এই শিব লিঙ্গের মাহাত্ম্য। দূরদূরান্তের অনেক মানুষ মানতও করতে আসেন এই ধামে। প্রতি শিব চতুর্দশীর রাতে পাথরখণ্ডকে ত্রিশুলেশ্বর দেব হিসেবে পুজো করে আসছেন স্থানীয়রা। ধীরে ধীরে প্রচার হওয়ায় মন্দির প্রাঙ্গণে ভিড় বাড়তে থাকে। দেখা দেয় জমি সমস্যা। পরে স্থানীয় সমাজসেবী তথা ধনীরামপুর ২ গ্রাম পঞ্চায়েতের প্রাক্তন প্রধান গজেন্দ্রনাথ রায় জমি দান করেন। সেই জমিতেই তৈরি করা হয় ত্রিশুলেশ্বর মন্দির। সেই থেকেই এই এলাকাটির নাম হয় ত্রিশুলেশ্বর ধাম।