গোরু পাচারকে কেন্দ্র করে চলল গুলি

314

পুরাতন মালদা: লকডাউনের মাঝেই দুই মাফিয়া গ্যাংয়ের মধ্যে দ্বন্দ্বের জেরে দিনেদুপুরে চলল গুলি। ঘটনাটি ঘটেছে পুরাতন মালদার সাহাপুরের সেতু মোড় এলাকায়। গুলিতে আহত ব্যক্তিকে মালদা মেডিকেল কলেজ ও হাসপাতালে ভর্তি করা হয়েছে। ঘটনার তদন্তে নেমেছে মালদা থানার পুলিশ।

শুক্রবার বিকেলের এই ঘটনায় আহত হয়েছে মৃণাল মণ্ডল ওরফে বিট্টু নামের এক ব্যক্তি। তার ডান হাত ও পিঠে গুলি লাগে। আহত অবস্থায় তাকে মালদা মেডিকেল কলেজ ও হাসপাতালে ভর্তি করা হয়। তার অবস্থা স্থিতিশীল বলে জানা গিয়েছে। খবর পেয়ে ঘটনাস্থলে পৌঁছায় মালদা থানার বিশাল পুলিশ বাহিনী। তদন্তে নামেন জেলার ডেপুটি পুলিশ সুপার আইন শৃঙ্খলা শুভতোষ সরকার।

- Advertisement -

পুলিশ সূত্রে জানা গিয়েছে, ভারত-বাংলাদেশ সীমান্তে গোরু পাচারকে কেন্দ্র করে সাহাপুরের মৃণাল মণ্ডল ওরফে বিট্টুর গ্যাংয়ের সঙ্গে মনোজ ঘোষ ও গ্যাংয়ের রেষারেষি চলছিল দীর্ঘদিন ধরে। প্রায় বছর দুয়েক ধরে একাধিকবার দ্বন্দ্বে জড়িয়েছে ওই দুই গ্যাং।

এদিন বিকেল তিনটে নাগাদ মৃণাল ওরফে বিট্টু বাইক নিয়ে যাওয়ার সময় সেতুমোড়ের কাছে তার বাইকের তেল শেষ হয়ে যায়। রাস্তার ধারে বাইক দাঁড় করালে তার অপর গোষ্ঠীর মনোজ ঘোষ ও তার ভাই রাজীব ঘোষ আগ্নেয়াস্ত্র নিয়ে বিট্টুর ওপর হামলা চালায়। তাকে লক্ষ্য করে পরপর বেশ কয়েক রাউন্ড গুলিও চালায় তারা। দুটি গুলি লাগে বিট্টুর ডান হাতে, দুটি গুলি পিঠ ছুঁয়ে বেরিয়ে যায়। গুলিবিদ্ধ অবস্থায় পাশের আমবাগান দিয়ে বেশ খানিকটা দৌঁড়ে পালায় বিট্টু। পেছনে মনোজ ও রাজীবও তাকে ধাওয়া করে। তবে গুলির আওয়াজ ও চিৎকারে আশেপাশের লোকজন জড়ো হয়ে যাওয়ায় পালিয়ে যায় মনোজ ও রাজীব। এরপর বিট্টুকে মালদা মেডিকেল কলেজ ও হাসপাতালে ভর্তি করা হয়। তার অবস্থা স্থিতিশীল।

পুলিশ জানিয়েছে, মৃণাল ওরফে বিট্টুর বিরুদ্ধে গোরুপাচার, বেআইনি অস্ত্র মজুত সমেত একাধিক মামলা রয়েছে। তিনটি মামলায় গ্রেপ্তারি পরোয়ানা রয়েছে বিট্টুর বিরুদ্ধে। দীর্ঘদিন ধরেই পুলিশের তালিকায় ফেরার ছিল সে। হাসপাতাল থেকে ছাড়া পেলেই তাকে নিজেদের হেপাজতে নেবে পুলিশ।

অন্যদিকে, গুলি চালনার ঘটনায় দুই অভিযুক্ত মনোজ ঘোষ ও তার ভাই রাজীব ঘোষের বাড়িতে তল্লাশি চালায় পুলিশ। তবে ঘটনার পর থেকেই গা ঢাকা দিয়েছে দু’জন। যদিও লকডাউনের মাঝে শহর লাগোয়া এলাকাতে দিনেদুপুরে কীভাবে দুষ্কৃতীরা দাপাচ্ছে? তা নিয়ে প্রশ্ন উঠতে শুরু করেছে।