লকডাউনে এবার অভ্রদীপের সিনেমা ওয়ান

278

সৌরভ দেব, জলপাইগুড়ি : কোনও স্ক্রিপ্ট নেই। নিয়ম মেনে শুটিংও হয়নি। নায়ক-নায়িকা নেই। পার্শ্বচরিত্রে অভিনয়ের বিষয় নেই। লকডাউনে ঘরে বসে সারা বিশ্বের মানুষের এই মুহূর্তের চিন্তাভাবনা একসূত্রে বেঁধে সিনেমা তৈরি করলেন জলপাইগুড়ির চিত্র পরিচালক অভ্রদীপ ঘটক। ২৭ মিনিটের এই সিনেমা শুক্রবার মুক্তি পাবে ইউটিউবে।

করোনা পরিস্থিতি মানুষকে এমন একটা জায়গায় নিয়ে গিয়েছে যেখানে বিশ্বের বিভিন্ন প্রান্তে ঘরবন্দি মানুষের চিন্তাভাবনা, সমস্যা, আতঙ্ক সবই মিলে এক হয়ে গিয়েছে। অভ্রদীপ তাঁর এই সিনেমার নামকরণ করেছেন ওয়ান। এর আগে তিনি স্মার্টফোনে স্বল্পদৈর্ঘ্যের সিনেমা তৈরি করে জনপ্রিয়তা পান এবং আন্তর্জাতিকস্তরে বিভিন্ন ফিল্ম ফেস্টিভালে পুরস্কৃত হন। কয়েকটি তথ্যচিত্রও তিনি তৈরি করেছেন। কিন্তু তাঁর এই সিনেমা সম্পূর্ণ আলাদা। তিনি জানান, তাঁর আত্মীয়পরিজন, বন্ধু অনেকে কর্মসূত্রে রাজ্য এবং দেশের বাইরে থাকেন। চলতি পরিস্থিতিতে অনেকে তাঁদের কর্মস্থলে আটকে। ভিডিও কলে তাঁদের খোঁজ নিতে গিয়ে এই সিনেমা তৈরি করার পরিকল্পনা মাথায় আসে। শুরু হয় ছবি তৈরির প্রস্তুতি। সকলকেই তিনি জানিয়ে দেন  ঘরবন্দি পরিস্থিতির অভিজ্ঞতা স্মার্টফোনে তুলে হোয়াটসঅ্যাপের মাধ্যমে তাঁকে পাঠিয়ে দিতে। আমেরিকা, ফ্রান্স, লন্ডনের পাশাপাশি দেশের বিভিন্ন প্রান্তে থাকা তাঁর পরিচিতরা তাঁদের অভিজ্ঞতার ভিডিও পাঠিয়ে দেন। অভ্রদীপ বলেন, দেখতে পেলাম  সকলের এখনকার জীবনয়াত্রা থেকে শুরু করে সমস্যা, ভাবনা, আতঙ্ক সব এক। মানে সারা বিশ্ব এখন এক কেন্দ্রবিন্দুতে এসে ঠেকেছে। সেই জায়গায় দাঁড়িয়ে সিনেমার নামকরণ করেছি ওয়ান। বাড়িতে বসেই বিশ্বের বিভিন্ন প্রান্ত থেকে আসা টুকরো টুকরো ভিডিওগুলো জোড়ার কাজ শুরু হয়। এই ছবির টাইমলাইনে জোড়া হয়েছে পরিচালকের গৃহবন্দির জীবনের ভিডিও। প্রায় একমাস ধরে চলেছে ছবি সম্পাদনার কাজ। অভ্রদীপ বলেন,শুক্রবার ইউটিউবে মুক্তি পাবে এই ছবি। ছবিতে কোনও কপিরাইট থাকছে না। আশা করি এই ছবি সকলের ভালো লাগবে। লকডাউনে বাড়িতে বসে করোনা সচেতনতায় বেশ কয়েকটি অ্যানিমেশন ভিডিও তৈরি করেছেন তিনি। সেগুলো ইতিমধ্যে জেলা প্রশাসনের মাধ্যমে বিভিন্ন সোশ্যাল মিডিয়ায় করোনা সচেতনতার প্রচারে কাজে লাগছে।

- Advertisement -