শ্রেয়সের টেস্ট অভিষেকের ঘোষণা রাহানের

কানপুর : নিজের ফর্ম নিয়ে চিন্তিত নন। দলের কম্বিনেশন এখনও চূড়ান্ত করেননি। কোচ রাহুল দ্রাবিড়ের সঙ্গে আলাদা করে কথা বলে তাঁর পরামর্শ পেয়ে গিয়েছেন। শ্রেয়স আইয়ারের কাল কানপুরের গ্রিন পার্কে টেস্ট অভিষেক হচ্ছেই।

আজিঙ্কা রাহানের সাংবাদিক সম্মেলন মানেই সহজ কথা সহজভাবে বলে দেওয়া। বিরাট কোহলির মতো একটা প্রশ্নের দীর্ঘ জবাব তিনি সচরাচর দেন না। বুধবার দুপুরের ভার্চুয়াল সাংবাদিক সম্মেলনেও সেভাবেই নিজেকে মেলে ধরেছেন ভারতীয় ক্রিকেটের জিঙ্কস (রাহানের ডাকনাম)। সঙ্গে ঘোষণা করেছেন, ‘লোকেশ রাহুল চোট পেয়ে ছিটকে যাওয়াটা অবশ্যই দলের জন্য ধাক্কা। ভাল ফর্মেও ছিল ও। কিন্তু কিছু করার নেই। বাস্তবকে মেনে নিতে হবে আমাদের। আর হ্যাঁ, কাল শ্রেয়সের টেস্ট অভিষেক হচ্ছে।’

- Advertisement -

টিম ইন্ডিয়ার মিডলঅর্ডার ব্যাটিংয়ের ভরসা হিসেবে রাহানে নিজে দলের অন্দরে ভাল জায়গায় নেই। ব্যাটে রান নেই তাঁর। ২০২০ সালের ডিসেম্বরে মেলবোর্ন টেস্টে শেষ শতরান। তারপর থেকে ব্যাটে রান খরা চলছে রাহানের। দল থেকে তাঁর বাদ পড়ার সম্ভাবনাও বাড়ছে। টিম ইন্ডিয়ার কার্যনির্বাহী অধিনায়ক রাহানে মাঠের বাইরের এসব ভাবনাকে গুরুত্ব দিচ্ছেন না।

রাহানের কথায়, ‘ফর্ম নিয়ে তেমন চিন্তিত নই আমি। নিজের কাজটা জানি। দলের সাফল্যের জন্য যা প্রয়োজন, যেভাবে প্রয়োজনকরতে তৈরি আমি। দলকে জেতানোর জন্য সবসময় শতরান করতেই হবে, এমন ভাবনায় বিশ্বাস করি না আমি। অনেক সময় ৩০, ৪০, ৫০ রানের ইনিংসও ম্যাচের ভাগ্য নির্ধারণে খুব গুরুত্বপূর্ণ হয়।’

ভারতীয় দলের সম্ভাব্য কম্বিনেশনের প্রসঙ্গ এড়িয়ে গিয়েছেন রাহানে। তাঁর কথায়, ‘দলের কম্বিনেশন নিয়ে এখনও চূড়ান্ত সিদ্ধান্ত নিইনি আমরা। ভারতের পিচে সাধারণত স্পিনাররা সাহায্য পায়। সময়ে সঙ্গে বল ঘোরে, নিচুও হয়। সবদিক খেয়াল রেখেই প্রথম একাদশ চূড়ান্ত করব আমরা। যারাই খেলবে, মাঠে একশো শতাংশ দেবে।’