নন্দীগ্রামে বিক্ষোভের মুখে শুভেন্দু

144

কলকাতা: নন্দীগ্রামের ভেটুরিয়া গ্রামে এক দলীয় কর্মীর বাড়ি থেকে ফেরার সময় বুধবার তৃণমূল কর্মীদের বিক্ষোভের মুখে পড়লেন বিজেপি প্রার্থী শুভেন্দু অধিকারী। অভিযোগ, শুভেন্দুর কনভয় আটকে ঝাঁটা, জুতো হাতে মহিলারা বিক্ষোভ দেখানো হয়। অন্যদিকে ‘বেইমান শুভেন্দু’ বলে তাঁরা স্লোগানও তোলেন। পরিস্থিতি সামাল দিয়ে শুভেন্দুর নিরাপত্তারক্ষীরা কর্ডন করে তাঁর কনভয় সেখান থেকে বের করে নিয়ে যান। এদিনের এই ঘটনাকে কেন্দ্র করে নন্দীগ্রামে নতুন করে উত্তেজনা তৈরি হয়েছে।

স্থানীয় সূত্রে জানা গিয়েছে, এদিন চন্ডীপুরে সভা সেরে শুভেন্দু হাজির হন নন্দীগ্রাম-২ ব্লকের ভেটুরিয়া গ্রামে। সেখানে এক বিজেপি কর্মীর বাড়িতে পুজোয় যোগ দেন। সেখান থেকে ফেরার সময়ই তণমূল কর্মীরা তাঁর কনভয়ের পথ আটকে বিক্ষোভ দেখাতে শুরু করেন। এই ঘটনার পিছনে তণমূলের আগাম পরিকল্পনা ছিল বলে বিজেপির দাবি। বিজেপি নেতাদের বক্তব্য, আগে সিপিএম শুভেন্দুকে আটকানোর চেষ্টা করত, এখন তণমূল করছে।

- Advertisement -

নন্দীগ্রামের বিজেপি নেতা প্রলয় পাল বলেন, ‘এক কর্মীর বাড়িতে শুভেন্দু গিয়েছিলেন। ফেরার সময় একদল মহিলা হঠাৎ করে এসে বিক্ষোভ দেখাতে শুরু করেন। শুভেন্দুর হাত ধরে মমতা নন্দীগ্রামে এসেছিলেন। এখন তণমূল শুভেন্দুকে আটকানোর হাজার চেষ্টা করলেও তাঁকে আটকানো যাবে না।’

যদিও এই ঘটনার সঙ্গে তণমূলের যোগ নেই বলে দাবি তণমূলের ব্লক সভাপতি স্বদেশ দাসের। তিনি বলেন, ‘এটা শুভেন্দু অধিকারীর প্রাপ্য ছিল। উনি নিজেকে ত্যাগী বলে দাবি করেন। কিন্তু উনি ভোগী। যে নন্দীগ্রাম আন্দোলনে বহু মানুষের প্রাণ গিয়েছিল, সেই আন্দোলনের যুক্ত মানুষদের বিরুদ্ধে মামলাগুলিকে ফের তুলে এনে উনি প্রমাণ করলেন নিজের স্বার্থ চরিতার্থ করতে উনি নন্দীগ্রামে এসেছেন। এই মুহূর্তে গোটা নন্দীগ্রাম ওঁর বিরুদ্ধে ফুঁসছে। এবার থেকে শুভেন্দুকে নন্দীগ্রামের কোনায় কোনায় এমন বিক্ষোভের মুখে পড়তে হবে।’