উপনির্বাচনের দাবি তোলায় মমতাকে আক্রমণে একসুর শুভেন্দু-সুজনের

158

কলকাতা: দ্রুত বিধানসভার উপনির্বাচন করানোর দাবি তোলায় মুখ্যমন্ত্রী মমতা বন্দ্যোপাধ্যায়কে একসুরে আক্রমণ করল বিজেপি ও সিপিএম। গতকালই মুখ্যমন্ত্রী জানিয়েছেন, বাংলায় এখন কোভিড পরিস্থিতি নিয়ন্ত্রণে। ভোট করাতে কোনও অসুবিধেই নেই। আর মুখ্যমন্ত্রীর এহেন উক্তির পরই তাঁকে আক্রমণ শানিয়েছেন বিরোধী দলনেতা শুভেন্দু অধিকারি ও সিপিএম নেতা সুজন চক্রবর্তী। দুজনেই জানান, রাজ্য যেখানে লোকাল ট্রেন চালানোর ঝুঁকি নিতে পারছে না সেখানে ভোট হবে কী করে। উল্লেখ্য এদিন চুঁচুড়ায় দলীয় কর্মসূচিতে যোগ দিতে গিয়েছিলেন শুভেন্দু। সেখানে তিনি বলেন, ‘উনি এত ব্যাস্ত হচ্ছেন কেন ভোটের জন্য’ এরপরই শুভেন্দুর খোঁচা, ‘উত্তরাখন্ডে বিজেপি নন এমএলএকে মুখ্যমন্ত্রীর পদ থেকে সরিয়ে একজন এমএলএকে দায়িত্ব দিয়েছেন উনি (মুখ্যমন্ত্রী) ২১২ জনের মধ্যে কাউকে খুঁজে পাচ্ছেন না।’ সুজন চক্রবর্তী জানান, ‘আমরা চিরকালই সঠিক সময়ে নির্বাচনের পক্ষে। রাজ্যে শতাধিক পুরসভার নির্বাচন বকেয়া রয়েছে। সেই ভোট করানোর কথা কেন বলছেন না মুখ্যমন্ত্রী।’

মমতা গতকাল জানিয়েছিলেন, ছ মাসের মধ্যে নির্বাচন করাতে হবে। আমরা অন্যায় কিছু চাইছি না। কারা বিরোধীতা করছে, কারা ভয় পাচ্ছে? কারণ ওরা বারবার নির্বাচনে হেরে যায়’ অনেকেই মনে করছেন রাজ্যে তৃণমূল বিপুল ভোটে ক্ষমতায় ফেরার পর এই উপনির্বাচনের কোনও গুরুত্ব নেই। কিন্তু মমতা বন্দ্যোপাধ্যায়কে ছ মাসের মধ্যে জিতে মুখ্যমন্ত্রী হতে হবে। কারণ তিনি নন্দীগ্রাম আসনে বিধানসভা ভোটে হেরে গিয়ে মুখ্যমন্ত্রী হয়েছেন। যদিও নন্দ্রীগ্রাম আসনের ফল নিয়ে হাইকোর্টে মামলা চলছে। তৃণমূলের দাবি, মমতাকে জিতে মুখ্যমন্ত্রী হওয়ার পথে বাধা দিতে চাইছে বিজেপি। এক্ষেত্রে নির্বাচন কমিশনকেও প্রভাবিত করা হচ্ছে।

- Advertisement -