মিশন গৌতমে বিজেপির অস্ত্র হতে পারেন শিখা চ্যাটার্জি

246

ভাস্কর বাগচী, শিলিগুড়ি : শিলিগুড়ি ও সংলগ্ন এলাকার হাতেগোনা যে কয়েকজন রাজনৈতিক ব্যক্তিত্বকে মমতা বন্দ্যোপাধ্যায় নামে চেনেন তাঁদের মধ্যে একজন শিখা চ্যাটার্জি। মঞ্চে দাঁড়িয়ে মুখ্যমন্ত্রী একাধিকবার তাঁর নাম উল্লেখ করেছেন, কখনও শিখাদেবী মঞ্চে না থাকায় জেলা নেতাদের কাছে কৈফিয়ত চেয়েছেন। তৃণমূল কংগ্রেসের দাপুটে নেত্রী, ডাবগ্রাম-ফুলবাড়ি বিধানসভা কেন্দ্রের বিধায়ক গৌতম দেবের একসময়ের অনুগামী শিখা চ্যাটার্জিকেই সম্ভবত বিধানসভা ভোটে পর্যটনমন্ত্রীর বিরুদ্ধে প্রার্থী করতে চলেছে বিজেপি। গৌতমবাবুর গলার কাঁটা হয়ে উঠবেন শিখাদেবী, এই প্রত্যাশায় তাঁকে গোটা ডাবগ্রাম-ফুলবাড়িতে মাটি কামড়ে পড়ে থাকার নির্দেশ দিয়েছে দল। ডাবগ্রাম-ফুলবাড়ি বিধানসভা কেন্দ্র তৃণমূলের দখলে থাকলেও বিজেপি গত লোকসভায় তৃণমূলের চাইতে এখানে প্রায় ৮৬ হাজার ভোট বেশি পেয়েছে। সেই অঙ্ক কষেই আগামী বিধানসভা ভোটে ওই কেন্দ্রে পদ্ম ফোটাতে মরিয়া বিজেপি। এমনকি ওই এলাকা দিয়ে রথযাত্রারও পরিকল্পনা করে ফেলেছেন পদ্ম শিবিরের নেতারা।

পদ্ম না ফের ঘাসফুল, ডাবগ্রাম-ফুলবাড়ি বিধানসভা কেন্দ্রে এবার শেষ পর্যন্ত কোন ফুল ফুটবে তা নিয়ে এখন জোর কানাঘুষো চলছে ওই এলাকায়। ২০১১ ও ২০১৬ বিধানসভা ভোটে ওই কেন্দ্রে জয়ী হয়ে রাজ্যের মন্ত্রী হয়েছেন গৌতম দেব। ২০১১-তে গৌতমবাবু সিপিএমের দিলীপ সিংকে প্রায় ১১ হাজার ভোটের ব্যবধানে হারিয়েছিলেন। ২০১৬ সালে সেই ব্যবধান আরও বাড়িয়ে ২৪ হাজার করেন তিনি। কিন্তু ২০১৯-এ লোকসভা ভোটে অনেক হিসেবনিকেশই বদলে যায়। তার ওপর গত পঞ্চায়েত ভোটে যেভাবে ভোট হয়েছে তাতে প্রচণ্ড ক্ষুব্ধ সাধারণ ভোটারদের একটা বড় অংশ। অভিযোগ, ওই ভোটে শিখা চ্যাটার্জি সহ কয়েকজনের বুথ দখল করেছে তৃণমূল। বিষয়টি  বিধানসভা ভোটে প্রচারেও টেনে আনছে বিজেপি। ২০১৯-এর লোকসভা ভোটে ওই বিধানসভা এলাকায় পদ্ম ফোটায় চিন্তিত তৃণমূল কংগ্রেস। বিজেপি সূত্রে খবর, গৌতম দেবের বিরুদ্ধে এবার শিখা চ্যাটার্জিই তাঁদের অস্ত্র। কারণ গৌতমবাবুর মতোই শিখাদেবী ডাবগ্রাম-ফুলবাড়ি এলাকা  হাতের তালুর মতো চেনেন।

- Advertisement -

এই পরিস্থিতিতে এ আসনে খুব স্বস্তিতে নেই তৃণমূল। গত লোকসভার নিরিখে এলাকায় তৃণমূলের অবস্থা খুব ভালো নয়, তা জানেন তৃণমূলের শীর্ষনেতৃত্বও। তাই এই মাসেই ডাবগ্রাম-ফুলবাড়ি বিধানসভা এলাকায় বাড়িভাড়া নিয়ে ভোট পর্যন্ত থাকার সিদ্ধান্ত নিয়েছেন গৌতম দেব। যদিও তিনি বলেন, বিজেপি একটা রাজনৈতিক দল। ওরা কাকে প্রার্থী করবে সেটা ওদের ব্যাপার। সেখানে আমার কিছু বলার নেই। শিখা চ্যাটার্জি বলেন, দল কাকে প্রার্থী করবে সেটা দলই সিদ্ধান্ত নেবে। এই ব্যাপারে আমার কোনও মন্তব্য নেই। আমি দলের অনুগত সৈনিক। দল যা নির্দেশ আমাকে দেবে আমি সেইমতোই চলব।