প্রতিবন্ধকতাকে অগ্রাহ্য করে পা দিয়েই ভাইকে ফোঁটা দিল দিদি

302

রায়গঞ্জ ২৯ অক্টোবরঃ ভাই-বোনের শ্নেহের মাঝে প্রতিবন্ধকতা যে বাধা হতে পারে না প্রমাণ করে দিল শোভা। রায়গঞ্জের রাঙাপুকুর গ্রামের দুস্থ  যুবতী শোভা মজুমদারের জন্ম থেকেই দুটি হাত অসম্পূর্ণ এবং অকেজো। তার উপর ছিল তীব্র আর্থিক সংকট সংসারে। কিন্তু অন্যান্যদের মত একেই জীবনের ভবিতব্য হিসেবে মেনে নেননি তিনি। দাঁতে দাঁত চেপে সমস্ত প্রতিবন্ধকতাকে অগ্রাহ্য করে দুই পা-কেই সম্বল করে এগিয়ে গিয়েছিলেন কাঙ্খিত লক্ষ্যে। আর তাই মঙ্গলবার সেই পা দিয়েই পরম মমতায় ভাইয়ের কপালে মঙ্গল তিলক এঁকে দিলেন শোভা। ভাইয়ের হাতে উপহার তুলে দিতে পেরে আবেগে শোভার চোখের জল এসে যায়।শোভা জানায় চলার পথে হোঁচট খেতে হয়েছে বহুবার। কিন্তু হার না মানার অদম্য জেদকে সঙ্গী করে দুটি পায়ের সাহায্যে পড়াশোনা করেছেন। শিখেছেন কম্পিউটারও। এমনকী হাতের কাজও শিখেছেন ঠিক একইভাবে। বছর দুয়েক আগে প্রাথমিক বিদ্যালয়ের শিক্ষিকা পদে যোগ দিয়েছেন শোভা। মঙ্গলবার সকালে শোভার রাঙাপুকুরের বাড়ি পৌঁছে দেখা গেল ভাইফোঁটা উপলক্ষে চরম ব্যস্ততা। দিদির হাতে ফোঁটা নিয়ে আজ খুশি শোভার ভাইও।