মাল বাজারে আগুনে পুড়ল ছয়টি দোকান

455

মালবাজার: শনিবার দুপুরে মাল শহরের ১২ নম্বর ওয়ার্ডের বাজার রোড এলাকায় অগ্নিকাণ্ডের ঘটনায় ব্যাপক চাঞ্চল্য ছড়ায়। অগ্নিকাণ্ডের ঘটনায় ৬টি দোকান ক্ষতিগ্রস্ত হয়েছে। স্থানীয়রা প্রাথমিক পর্বে আগুন নেভানোর কাজ শুরু করেন। মালবাজারের দমকল কেন্দ্রের দুটি ইঞ্জিনও দ্রুত ঘটনাস্থলে এসে পরিস্থিতি নিয়ন্ত্রণে আনে।

স্থানীয় সূত্রে জানা গিয়েছে, অগ্নিকাণ্ডে ৬ টি দোকান ক্ষতিগ্রস্ত হয়েছে। স্থানীয় বাসিন্দা এবং দমকল বাহিনীর তৎপরতায় আগুন ভয়ানক আকার নিতে পারেনি। ওই এলাকায় পরপর কাঠের দোকান ঘর ছিল। স্বাভাবিকভাবে অগ্নিকাণ্ড ভয়াবহ আকার না নেওয়াতে স্বস্তির নিঃশ্বাস ফেলেছে বিভিন্ন মহল। ক্ষতিগ্রস্ত দোকানগুলোর মধ্যে কাপড়, গুদাম, কৃষিজও সার, কীটনাশকের দোকান, মুদির সামগ্রীর দোকান, চালের গুদাম মিষ্টির দোকান এবং লটারির দোকান আছে। স্থানীয় বাসিন্দারা বলেন, বন্ধ কাপড়ের গুদাম থেকেই প্রথমে ধোঁয়া ও আগুন দেখা যায়।

- Advertisement -

স্থানীয় ব্যবসায়ী শুভেন্দু কুমার বণিক বলেন, ওই কাপড়ের গুদামের সামনেই একজন ফল বিক্রেতা বসেন। তারই চিৎকারেই আমরা প্রথম আগুন লাগার ঘটনাটি জানতে পারি। বন্ধ দোকান থেকে ধোঁয়া বের হচ্ছিল। স্থানীয়রা প্রথম আগুন নেভানোর কাজ শুরু করি। দমকল বাহিনীকেও খবর দেওয়া হয়। দমকল বাহিনীও ঘটনাস্থলে ছুটে আসে। স্থানীয় আর এক ব্যবসায়ী রমেশ গিরি বলেন, দিনের বেলায় আগুন লাগার ঘটনাকে কেন্দ্র করে ব্যাপক চাঞ্চল্য ছড়ায়। আমাদের প্রাথমিকভাবে অনুমান সম্ভবত বিদ্যুৎ শর্টসার্কিট থেকেই আগুন লাগার ঘটনাটি ঘটতে পারে। পাশাপাশি ঘন দোকান থাকাতে আতঙ্ক বাড়ে। বিভিন্ন দোকান থেকেই মজুত সামগ্রী বের করে ফেলা হয়।

মাল হাট ব্যবসায়ী সমিতির সম্পাদক কমল দত্ত বলেন, অগ্নিকাণ্ডের ঘটনা নিয়ে আমরা উদ্বিগ্ন। আমাদের সকলকে সতর্ক থাকতে হবে। এদিন দমকল বাহিনী সহ সকলের প্রচেষ্টার ফলেই অগ্নিকাণ্ড ভয়াবহ আকার নিতে পারেনি। এর পূর্বেও মালবাজারে কয়েক দফায় ভয়াবহ অগ্নিকাণ্ডের ঘটনা ঘটেছে। আমাদের সকলকেই সব সময় বাড়তি সতর্কতা বজায় রাখতে হবে। এদিকে এদিনের অগ্নিকাণ্ডের ঘটনা প্রবাহ নিয়ে দমকল বাহিনীর কোনো বক্তব্য পাওয়া যায় নি।