জঙ্গল থেকে উদ্ধার কঙ্কালসার মৃতদেহ, চাঞ্চল্য

55

ধূপগুড়ি: সোনাখালি জঙ্গল থেকে নিখোঁজ ব্যক্তির কঙ্কালসার মৃতদেহ উদ্ধারকে কেন্দ্র করে চাঞ্চল্য ছড়াল। ঘটনাটি ঘটেছে, শুক্রবার সাকোয়াঝোড়া ২ নং গ্রাম পঞ্চায়েত এলাকায়।

স্থানীয় সূত্রে জানা গিয়েছে, গত বছর জুন মাসের মাঝামাঝি সময়ে উত্তর গোসাইহাটের বাসিন্দা উমাচরন রায়(৫৫) নামে এক ব্যক্তি নিখোঁজ হয়। পরিবারের লোকেরা পুলিশের কাছে নিখোঁজ ডায়রিও করা হয়। কিন্তু চারিদিকে খোঁজ খবর করেও কোনো সন্ধান পাওয়া যায়নি। পরিবারের লোকেরা নিখোজ ব্যক্তি ফরে আসবে বলে আশায় ছিলেন। কিন্তু এদিন সোনাখালি জঙ্গলের কালাখাম্বা এলাকায় কঙ্কালসার মৃতদেহ এবং জামা কাপড় উদ্ধার হয়। ওই জামা-কাপড় দেখেই পরিবারের লোকেরা শনাক্ত করে যে উদ্ধার হওয়া মৃতদেহটি উমাচরণ রায়ের।

- Advertisement -

জানা গিয়েছে, এদিন ছোট ছেলেরা জঙ্গলের আশেপাশে খেলছিল। সেইসময় কঙ্কাল দেখতে পেয়ে আতঙ্কিত হয়ে পড়ে এবং স্থানীয়দের জানানো হয়। পরে পুলিশকে খবর দেওয়া হয়। স্থানীয়দের মধ্যে এদিনের ঘটনায় যথেষ্ট আতঙ্ক ছড়িয়েছিল।

স্থানীয়রা জানায়, কোভিড পরিস্থিতিতে বিভিন্ন স্কুলে কোয়ারান্টাইন সেন্টার গড়া হয়েছিল। গত বছর জুন মাসে উত্তর গোসাইহাট এলাকাতেও ভিনরাজ্য ফেরত শ্রমিকদের জন্যে কোয়ারান্টাইন সেন্টার গড়া হয়েছিল। তখন কৌতূহলবশত উমাচরণ রায় কোয়ারান্টাইন সেন্টার দেখতে চলে যায়। যা নিয়ে পরিবারের লোকেরা আতঙ্কিত হয়ে পড়েন এবং কোভিড পরিস্থিতিতে কেন কোয়ারান্টাইন সেন্টার দেখতে গিয়েছিলেন তা নিয়ে বাড়ি ফেরার পর ছেলের সঙ্গে বচসাও বাঁধে। সেই থেকেই মানসিক বিধ্বস্ত হয়ে বাড়ি থেকে বেরিয়ে যায় এবং অনেক খোঁজাখুজির পরও তাঁর সন্ধান মেলনি বলে জানিয়েছেন পঞ্চায়েত সমিতির সদস্য শ্যামল রায়। তিনি বলেন, ‘এদিন মৃতদেহের পাশের জামা কাপড় দেখে পরিবার শনাক্ত করেছে।’