করোনাতেও দমেনি সৃষ্টিশীলতা, প্রমাণ করল খুদে শিল্পীরা

41

শিলিগুড়ি: করোনার সঙ্গে যুদ্ধে কেটে গিয়েছে দু দুটো বছর। কিন্ত থমকে থাকেনি সৃষ্টিশীলতা। গত শনি ও রবিবার দীনবন্ধু মঞ্চের রামকিঙ্কর হলে আয়োজিত এক চিত্র প্রদর্শনীতে সেটাই প্রমাণ করল একঝাঁক খুদে শিল্পী।ছোট শিল্পীদের নিয়ে দুদিনের এই প্রদর্শনী ‘রঙিন তারার দেশে’ আয়োজন করেছিল ফিনিক্স আর্ট এন্ড কালচারাল ফাউন্ডেশন, ক্যানভাস এ স্কুল অফ পেইন্টিং আর তসবির দ্য স্কুল অফ আর্ট এন্ড ক্রাফট নামে শহরেরই তিনটি অঙ্কন শিক্ষা প্রতিষ্ঠান। স্থান পেয়েছিল ৪২ জন শিল্পীর আঁকা প্রায় ১০০টি ছবি। পেনসিল স্কেচ, প্যাস্টেলের কাজ থেকে জল রং, এমনকী অয়েল পেন্টিংয়েও তাক লাগিয়েছে খুদে শিল্পীরা। শিল্পীদের হাতের কাজ প্রশংসা কুড়িয়েছে দর্শকদেরও।

আয়োজকদের পক্ষে অর্ঘ্য ভট্টাচার্য, ছন্দসী পাল বা সৌরভ বন্দ্যোপাধ্যায়রা একমত, প্রদর্শনীতে অনেকের আঁকাই বড়দের শিল্পকর্মের সঙ্গে তুলনীয়। ছোটদের শিল্পকর্মের শুধু প্রদর্শনীই নয়, ছবি বিক্রি করে সেই অর্থ দিয়ে গরিব শিশুদের অঙ্কন প্রতিভার বিকাশে সাহায্য করার পরিকল্পনাও রয়েছে এদের। শনিবার এই প্রদর্শনীর উদ্বোধন করেন বিশিষ্ট শিক্ষিকা তথা চাইল্ড কাউন্সেলার ছন্দা দাস। প্রদর্শনীর শেষের দিন খুদে শিল্পীদের হাতে সংশাপত্রও তুলে দেওয়া হয়।

- Advertisement -