দূষণে জেরবার পাহাড়ি ঝরনাও, সচেতনতায় জোর

308

সাগর বাগচী, শিলিগুড়ি : শহরের মধ্যে দিয়ে বয়ে যাওয়া নদীগুলি শুধু নয়, পাহাড়ের কোল থেকে নেমে আসা ঝরনাগুলি দূষণে জেরবার। কার্সিয়াং মহকুমার রোহিণীর ঝরনা পর্যটকদের কাছে অত্যন্ত প্রিয় জায়গা। কিন্তু এই এলাকার প্রতিটি ঝরনা প্লাস্টিক দূষণের শিকার। দূর থেকে ঝরনাগুলি দেখতে অত্যন্ত সুন্দর লাগলেও সামনে গেলে দূষণের আসল চেহারা দেখা যায়। ঝরনার পাথরগুলির খাঁজে খাঁজে জমে রয়েছে প্লাস্টিক ক্যারিব্যাগ, চিপসের প্যাকেট, ডিটারজেন্ট-এর প্যাকেট থেকে শুরু করে মদের বোতল, সিমেন্টের ব্যাগ সহ বিভিন্ন জিনিস। আবার অনেক জায়গায় ঝরনার সামনে গাড়ি দাঁড় করিয়ে চলছে ধোয়ার কাজ। ফলে প্রতিনিয়ত জলে দূষণ ছড়াচ্ছে। শিলিগুড়ি শহরের মধ্যে দিয়ে বয়ে যাওয়া মহানন্দা, বালাসন, ফুলেশ্বরী, জোড়াপানি সহ একাধিক নদী দীর্ঘদিন ধরে দূষণে জেরবার। শহরের ভেতর দিয়ে বয়ে যাওয়া নদীগুলি মূলত ঝরনার জলে পুষ্ট। তাই তাতে বছরভর কিছুটা হলেও জল থাকে। কিন্তু বর্তমানে পাহাড় থেকে দূষিত হয়ে সেই জল সমতলে আসছে। বিষয়টি নিয়ে কার্সিয়াংয়ের মহকুমাশাসক দেবাশিস চট্টোপাধ্যায় বলেন, পাহাড়ের বাসিন্দারা শুধু নয়, পর্যটকরাও বিভিন্ন সামগ্রী ব্যবহার করে প্লাস্টিক ক্যারিব্যাগ যত্রতত্র ফেলে চলে যাচ্ছেন। যার ফলে দূষণ ছড়াচ্ছে। মানুষকে দূষণ সম্পর্কে আরও বেশি সচেতন হতে হবে। আমরাও লাগাতার প্রচার অভিযান চালাচ্ছি।