কোচবিহার জেলাজুড়ে চলছে ক্ষুদ্র চা বাগানের পরিচর্যা

303

রামকৃষ্ণ বর্মন, জামালদহ: লকডাউনে চা বলয়কে ছাড় দেওয়া হয়েছে। এতে কোচবিহার জেলার ক্ষুদ্র চা চাষিরা উপকৃত হচ্ছেন। কিন্তু লকডাউনের জেরে বাগানের পরিচর্যার ক্ষেত্রে তাঁরা সমস্যার সম্মুখীন হচ্ছেন বলে জানিয়েছেন। দোকানপাট সম্পূর্ণ বন্ধ থাকায় বাগানে রাসায়নিক সার ও কীটনাশক প্রয়োগের কাজ যেমন ব্যাহত হচ্ছে পাশাপাশি, শ্রমিক সমস্যাও দেখা দিয়েছে বলে জানিয়েছেন তাঁরা।

লকডাউনের জেরে অনেক শ্রমিকই বাগানের কাজে যোগ দেওয়া নিয়ে আগ্রহ দেখাচ্ছেন না। তবে, জেলার ক্ষুদ্র চাষিরা নিজেদের চেষ্টায় বাগানের পরিচর্যা পুরোদমে চালানোর মরিয়া চেষ্টা চালাচ্ছেন। কারণ, চলতি মরশুমে কাঁচা চা পাতার দাম অনেকটাই ঊর্ধ্বমুখী। ক্ষুদ্র বাগান সূত্রে জানা গিয়েছে, কোয়ালিটি অনুসারে কোচবিহার জেলায় পাতার দাম কেজি প্রতি ৩৫ টাকা ছড়িয়ে গিয়েছে। তাই যেভাবেই হোক, বাগানের পরিচর্যার কাজ জারি রাখছেন ক্ষুদ্র চা চাষিরা।

- Advertisement -

এই বিষয়ে ক্ষুদ্র চা চাষিদের সংগঠনের কর্মকর্তা রজত রায় কার্জি জানিয়েছেন, কোচবিহার জেলায় এই মুহূর্তে প্রায় এক হাজার ক্ষুদ্র চা চাষি রয়েছেন। জেলায় বটলিফ কারখানা রয়েছে ৫টি। লকডাউনের আওতার বাইরে রয়েছে চা বাগান। তাই এদিন শ্রমিকের কিছুটা অপ্রতুলতা থাকলেও বাগানের কাজকর্ম স্বাভাবিকই ছিল।