বৈদ্যুতিক চুল্লি তৈরির জন্য মাটি পরীক্ষা

185

তুফানগঞ্জ: বৈদ্যুতিক চুল্লি তৈরির জন্য মাটি পরীক্ষার কাজ শুরু হল। বৃহস্পতিবার সকালে তুফানগঞ্জ শহরের রায়ডাক-১ নদীর চরে ৬ নম্বর ওয়ার্ডে পূর্ত দপ্তরের তরফে মাটি পরীক্ষার কাজ শুরু হয়। এদিন শ্মশানে গিয়ে মাটি পরীক্ষার কাজ খতিয়ে দেখেন তুফানগঞ্জ পুরসভার প্রশাসক মণ্ডলীর চেয়ার পার্সন কৃষ্ণা ইশোর।

কৃষ্ণাদেবী বলেন, ‘তুফানগঞ্জ মহকুমাবাসীর দীর্ঘদিনের দাবি ছিল বৈদ্যুতিক চুল্লি বসানোর। আমি প্রশাসক মণ্ডলীর চেয়ারপার্সন হওয়ায় পরে প্রথমে কিছু কাজ করেই বৈদ্যুতিক চুল্লি বসানোর লক্ষ্য নিয়ে ছিলাম। এজন্য আমি পুর ও নগর উন্নয়ন দপ্তরের মন্ত্রী চন্দ্রিমা ভট্টাচার্যের সঙ্গে কথা বলেছি। মাটি পরীক্ষার কাজ শেষ হলে খুব শীঘ্রই বৈদ্যুতিক চুল্লির কাজ শুরু হবে।’ তিনি আরও বলেন, ‘মোট ৫০০ বর্গ মিটার এলাকা জুড়ে বৈদ্যুতিক চুল্লি বসানো হবে। মোট দুটো বৈদ্যুতিক চুল্লি বসানো হবে। এরজন্য খরচ হবে প্রায় চার কোটি টাকা।’

- Advertisement -

পূর্ত দপ্তরের কোচবিহারের এগজিকিউটিভ ইঞ্জিনিয়ার গৌতম চট্টোপাধ্যায় বলেন, ‘এদিন বৈদ্যুতিক চুল্লি তৈরির জন্য মাটি পরীক্ষা করা হয়েছে। মাটি পরীক্ষার ফল ভালো হলে পরবর্তী পর্যায়ের কাজে হাত লাগানো হবে।’