জমি দেখা হলেও জঞ্জাল সমস্যা মেটেনি আঠারোখাইয়ে

276

সৌরভ রায়, ফাঁসিদেওয়া : একবছর আগে সলিড ওয়েস্ট ম্যানেজমেন্টের জমি চিহ্নিত হয়েছিল, তারপর থেকে অনেক সময় গিয়েছে, কিন্তু জমিজটের কারণে আঠারোখাই গ্রাম পঞ্চায়েতের শিসাবাড়িতে এখনও তৈরি হয়নি ওই প্রকল্প। যার জেরে আঠারোখাইয়ে বিভিন্ন জায়গায় দেখা যাবে পড়ে রয়েছে আবর্জনার স্তূপ। স্থানীয় বাসিন্দা ও পথচলতি মানুষকে নাকে কাপড় চাপা দিয়ে যাতায়াত করতে হয়। জমি চিহ্নিত হওয়ার পরেও কেন প্রশাসনের তরফে সলিড ওয়েস্ট ম্যানেজমেন্ট চালুর জন্য উদ্যোগ নেওয়া হল না, তা নিয়ে প্রশ্ন তুলেছেন স্থানীয়রা। প্রয়োজনে অন্য জমিতে ওই প্রকল্পের কাজ শুরুর দাবি জানিয়েছেন তাঁরা।

আঠারোখাই গ্রাম পঞ্চয়েত এলাকায় আবর্জনার সমস্যা মেটাতে শিসাবাড়ি এলাকায় সলিড ওয়েস্ট ম্যানেজমেন্ট চালুর সিদ্ধান্ত নেয় শিলিগুড়ি জলপাইগুড়ি উন্নয়ন কর্তৃপক্ষ (এসজেডিএ)। প্রাথমিকভাবে জমি চিহ্নিত করা হয়। কিন্তু জমিতে সীমানাপ্রাচীর দিতে গেলে স্থানীয়দের বাধায় তা আটকে যায়। তারপর থেকে আঠারোখাইয়ে সলিড ওয়েস্ট ম্যানেজমেন্ট চালুর বিষয়টি কার্যত পিছনে চলে গিয়েছে। আবর্জনা ফেলার নির্দিষ্ট জায়গা না থাকায় শিবমন্দিরের একাধিক জায়গায় আবর্জনা জমে অঘোষিত ডাম্পিং গ্রাউন্ডের রূপ নিয়েছে। শিবমন্দির বাজার, রেলগেট, এসএন বোস রোড, সোনারতরি, এশিয়ান হাইওয়ে২ সংলগ্ন আইন কলেজের পাশে আবর্জনা স্তূপ হয়ে পড়ে থাকে। স্থানীয় বাসিন্দা অরুণ বিশ্বাস, বিপুল ঘোষ প্রমুখ জানান, আবর্জনা ফেলার নির্দিষ্ট জায়গা না থাকায় যেখানে-সেখানে আবর্জনা পড়ে থাকে। যার ফলে নানা রোগ ছড়ানোর আশঙ্কাও বাড়ছে। এই নিয়ে গ্রাম পঞ্চায়েত সহ প্রশাসনের বিভিন্ন স্তরে জানিয়ে কোনো লাভ হয়নি। মাটিগাড়ার বিডিও রুনু রায় জানান, দুমাস আগে ব্লকে সলিড ওয়েস্ট ম্যানেজমেন্ট প্রকল্পের জন্য শিলিগুড়ি মহকুমা পরিষদে ডিপিআর তৈরি করে পাঠানো হয়েছে। সেটি অনুমোদিত না হওয়া পর্যন্ত টেন্ডার করে কাজ শুরু করা যাচ্ছে না। যে সব জায়গায় আবর্জনা পড়ে থাকছে, সেই জায়গাগুলি পরিষ্কার করার জন্য গ্রাম পঞ্চায়েতকে বলা হয়েছে বলে জানান বিডিও। তিনি আরও জানান, প্রকল্পের জন্য জমি চিহ্নিত করা হয়েছেন তবে সাধারণ মানুষের বিভ্রান্তির জন্য সেখানে সীমানাপ্রাচীর দেওয়া যায়নি। সমস্যা মেটানোর জন্য ব্লক ও জেলাস্তরে একাধিকবার আলোচনাতেও বসা হয়েছিল। আঠরোখাই গ্রাম পঞ্চায়েতের প্রধান অভিজিত্ পাল জানান, এসজেডিএ যে সরকারি জমিটি চিহ্নিত করেছিল, সেই জমিটি কিছু মানুষ অবৈধভাবে দখল করে রেখেছেন, তাঁরাই কাজ আটকে দিয়েছেন। যাঁরা কাজে বাধা দিচ্ছেন, তাঁদের বিরুদ্ধে আইনি পদক্ষেপ করা হবে বলে পঞ্চায়েত প্রধান জানান।

- Advertisement -

শিলিগুড়ি মহকুমা পরিষদের সভাধিপতি তাপস সরকার জানান, প্রথমে ওই এলাকায় সলিড ওয়েস্ট ম্যানেজমেন্ট প্রকল্পটি মহকুমা পরিষদের তৈরির কথা থাকলেও, পরে তত্কালীন জেলাশাসকের নির্দেশে এসজেডিএ ওই প্রকল্পটি তৈরি করবে বলে সিদ্ধান্ত হয়। তাই মহকুমা পরিষদ প্রকল্পটি থেকে পিছিয়ে আসে। ব্লক থেকে পাঠানো ডিপিআর রাজ্যের কাছে পাঠানো হয়েছে, সেটি অনুমোদিত হলেই কাজ শুরু হবে।