জামাইয়ের দাবি মতো টাকা দিতে পারেননি বাবা, স্টেশনে ঠাঁই বধূর

136

বর্ধমান: ৫০ হাজার টাকা দিতে পারেন নি বধূর বাবার বাড়ির লোকজন।তার পরিণাম স্বরূপ শিশু সন্তান সহ অন্তঃসত্বা বধূকে বাড়ি থেকে তাড়িয়ে দেওয়ার অভিযোগ উঠলো স্বামী ও শ্বশুরবাড়ির লোকজনের বিরুদ্ধে। শ্বশুর বাড়ির লোকজনের এমন নির্মমতার শিকার হওয়া বধূর এখন ঠাঁই হয়েছে পূর্ব বর্ধমানের পূর্বস্থলী স্টেশনে। ঘটনার বিহিত চেয়ে ওই বধূ পূর্বস্থলী থানায় অভিযোগ দায়ের করেছেন। পুলিশ বধূ নির্যাতনের মামলা রুজু করে ঘটনার তদন্ত শুরু করেলেও সুরাহা এখনও হয়নি। যদিও সন্তানকে নিয়ে শ্বশুর বাড়ির আশ্রয় ফিরে পেতে পুলিশ-ই এখন ভরসা অসাহায় বধূর।

পুলিশ ও স্থানীয় সূত্রে জানাগিয়েছে, নির্যাতিতা বধূ প্রিয়া রাজোয়ার শ্বশুর বাড়ি পূর্বস্থলীর ছাতনীর রাজবংশী পাড়ায়। বধূর দুই বছর বয়সী একটি পুত্র সন্তান রয়েছে। বর্তমানেও ওই বধূ অন্তঃসত্ত্বা। তাঁর অভিযোগ ,তাকে বাপের বাড়ি থেকে ৫০ হাজার টাকা নিয়ে আসতে বলে স্বামী সহ ও শ্বশুর বাড়ির লোকজন। কিন্তু তাঁর বাপের বাড়ির লোকজন সেই টাকা দিতে পারেন নি। সেইকারণে বেশ কিছুদিন ধরে তিনি তাঁর স্বামী, শাশুড়ি ও অন্যরা শারীরিক ও মানসিক নির্যাতন চালাচ্ছিল। টাকা আনতে না পারায় তিন দিন আগে শিশু সন্তান সহ তাঁকে শ্বশুর বাড়ি থেকে তাড়িয়ে দেওয়া হয়।পূর্বস্থলী থানার এক পুলিশ অফিসার  জানিয়েছেন, ‘বধূর অভিযোগের ভিত্তিতে বধূ নির্যাতনের মামলা রুজু করা হয়েছে। তদন্ত করে আইনানুগ ব্যবস্থা নেওয়া হবে।

- Advertisement -