পরিযায়ী ইশ্যুতে কেন্দ্রকে একহাত নিলেন সোনু

485

বারবার সামনে এসেছে সোনু সুদের মানবিক রূপ। নিজে সামনে দাঁড়িয়ে থেকে বাসে করে দেশের বিভিন্ন প্রান্তের পরিযায়ী শ্রমিকদের বাড়িতে পৌঁছে দিয়েছেন। কখনও কারও ঝড়ে ভেঙে যাওয়া বাড়ি সারিয়ে দিয়েছেন, কারও বাড়িতে পড়াশোনার জন্য ল্যাপটপ পাঠিয়ে দিয়েছেন, আবার পড়ুয়াদের জন্য স্কলারশিপেরও ব্যবস্থা করেছেন। এবার পরিযায়ী শ্রমিকদের মৃত্যুর পরিসংখ্যান নিয়ে কেন্দ্রীয় সরকারকে একহাত নিলেন। শেয়ার করলেন শিল্পী সতীশ আচার্যর আঁকা কার্টুন। যেখানে সোনুর বাড়ির সামনে দাঁড়িয়ে তাঁকে লকডাউনের সময়ে পরিযায়ী শ্রমিকদের মৃত্যুর পরিসংখ্যান জানতে চাওয়া হচ্ছে। যার উত্তরে সোনু দুঃখ প্রকাশ করে বলছেন, সে উত্তর দিতে তিনি পারবেন না। কারণ তিনি পরিযায়ী শ্রমিকদের বাঁচাতেই ব্যস্ত ছিলেন। উল্লেখ্য, মঙ্গলবারই পরিযায়ী শ্রমিকদের প্রসঙ্গ ওঠে লোকসভার বাদল অধিবেশনে। লকডাউনের সময় বাড়ি ফেরার পথে কতজন পরিযায়ী শ্রমিকের মৃত্যু হয়েছে, প্রতিটি রাজ্যে কতজন শ্রমিক ফিরেছে, সে সম্পর্কে কেন্দ্রের কাছে বিস্তারিত তথ্য আছে কিনা জানতে চাওয়া হয়। তাঁদের ক্ষতিপূরণের বিষয়ে জানতে চাওয়া হয়। এর জবাবে শ্রমমন্ত্রকের স্বাধীন দায়িত্বপ্রাপ্ত মন্ত্রী সন্তোষ গাঙ্গওয়াড় জানান, লকডাউনের সময় কতজন শ্রমিক মারা গিয়েছেন, তা নিয়ে কেন্দ্রের কাছে কোনও বিস্তারিত তথ্য নেই। তাই ক্ষতিপূরণ দেওয়ার কোনও প্রশ্নই উঠছে না।