গৌতম দেবের গানে ভাষ্য দেবেন সৌমিত্র চট্টোপাধ্যায়

565

ভাস্কর বাগচী, শিলিগুড়ি : গান গাইছেন গৌতম দেব। সঙ্গে আবৃত্তিতে সৌমিত্র চট্টোপাধ্যায়। সঙ্গে শান্তিনিকেতন, উত্তরবঙ্গের তরাই, ডুয়ার্সের ছবির সঙ্গে উত্তরবঙ্গের নৃত্যশিল্পীদের পারফরমেন্স। মন্ত্রীর সঙ্গে কোরাস গাইছেন কলকাতার সংগীত শিক্ষায়তনের শিল্পীরা। গত নভেম্বর মাস থেকে নিজের প্রথম গানের অ্যালবাম, এ জীবন পুণ্য করো-র জন্য দিনরাত এক করে ফেলছেন পর্যটনমন্ত্রী। শান্তিনিকেতনের বেশ কিছু জায়গায় এজন্য মন্ত্রীর ভিডিও রেকর্ডিংয়ের কাজ শেষ। সৌমিত্র চট্টোপাধ্যায়ে গলায় আটটি কবিতার আবৃত্তি, মন্ত্রীর আটটি রবীন্দ্রসংগীতের রেকর্ডিং প্রায় শেষ। এখন এডিটিংয়ের কাজ চলছে। পুজোর আগেই মন্ত্রীর গানের অ্যালবামের টিজার ছাড়া হচ্ছে ইউটিউব, মন্ত্রীর ফেসবুক পেজ থেকে শুরু করে বিভিন্ন প্রচারমাধ্যমে। এনিয়ে উচ্ছ্বসিত দলের কর্মীরা। অনেকেই বলতে শুরু করেছেন, এবার ভোটের প্রচারে গান গেয়ে বাজার মাত করে দেবেন গৌতম দেব। মন্ত্রী নিজে বলছেন, সৌমিত্র চট্টোপাধ্যায়ের মতো ব্যক্তিত্ব যে আমার অ্যালবামে ভাষ্য দেবেন, তা আমি কোনওদিন ভাবতেও পারিনি। আমি ওঁর কাছে কৃতজ্ঞ।

সামনেই বিধানসভা ভোট। আর এবার তাই নিজের বিধানসভা এলাকায় চমক আনতে চলেছেন পর্যটনমন্ত্রী গৌতম দেব। সকাল-সন্ধে বাড়িতে তাই চলছে গানের রেওয়াজ। শিলিগুড়িতে আশিস বণিক নামে একজন শিল্পীর কাছে গানের অ-আ-ক-খ শিখেছেন। কলকাতায় গেলে সেখানেও তালিম নিচ্ছেন বেশ কয়েকজন শিল্পীর কাছে। তবে দীর্ঘ ৪০ বছরের রাজনৈতিক জীবনে হারমোনিয়ামের রিডগুলিতে কখনও হাত দেননি ষাটোর্ধ্ব মানুষটি। তাই গানের সুরে সমস্যা একটু হচ্ছেই। ইতিমধ্যেই স্টেজে অনুষ্ঠানের হাতেখড়ি হয়ে গিয়েছে শিলিগুড়িতে গত ১৪ অগাস্ট মধ্যরাতে দলীয় অনুষ্ঠানে। পরবর্তীতে শিলিগুড়ির মৈনাকেও একটি অনুষ্ঠানে তাঁকে গান গাইতে দেখা গিয়েছে। কিন্তু সেই তালিম-রেওয়াজ না থাকায় মন্ত্রীমশাইকে অ্যালবাম বানাতে গিয়ে একটু সমস্যার মধ্যে পড়তে হচ্ছে। তবে কলকাতার যে স্টুডিওয় গানের রেকর্ডিং হয়েছে সেখানকার শিল্পীরাও ছাড়বার পাত্র নন। একেকটি গান যতক্ষণ না সঠিকভাবে মন্ত্রীমশাই গাইতে পেরেছেন ততক্ষণ পর্যন্ত কিন্তু ছাড়েননি রেকর্ডিংয়ের দায়িত্বে থাকা কারিগরি বিভাগের কর্মীরা। মূলত তাঁদের উত্সাহেই একের পর এক তিনি গেয়েছেন আগুনের পরশমণি ছোঁয়াও প্রাণে, আমরা সবাই রাজা আমাদের এই রাজার রাজত্বে, আকাশ ভরা, সূর্য তারা- এমন আটটি গান। মন্ত্রীর গানের সঙ্গে কোরাসে রয়েছেন প্রখ্যাত রবীন্দ্র সংগীত শিল্পী অগ্নিভ বন্দ্যোপাধ্যায়ের স্কুলের শিক্ষার্থীরা। তাঁরাও মন্ত্রীর গানের সঙ্গে তাল মেলাতে অক্লান্ত পরিশ্রম করেছেন। সব মিলিয়ে পুজোর পরই অন্য চেহারায় অ্যালবামের কভারে দেখা পাওয়া যাবে পর্যটনমন্ত্রীকে।

- Advertisement -

গত বছর নভেম্বর মাস থেকে মন্ত্রীর গানের রেকর্ডিং শুরু হলেও মাঝে লকডাউনের কারণে তা অনেকদিন বন্ধ ছিল। পরে ফের তা চালু হয়েছে। সৌমিত্র চট্টোপাধ্যায়ের মতো মানুষ তাঁর গানের অ্যালবামে আবৃত্তি করতে রাজি হওয়ায় আপ্লুত পর্যটনমন্ত্রী। জানা গিয়েছে, পুজোর মধ্যে টিজার ছাড়ার কিছুদিন পরেই কলকাতা ও শিলিগুড়িতে মন্ত্রীর গানের অ্যালবামের উদ্বোধন হবে। কলকাতার অনুষ্ঠানে সৌমিত্র চট্টোপাধ্যায় উপস্থিত থাকবেন বলে কথাও দিয়েছেন।