সূচি মেনেই আইপিএল, আশ্বাস সৌরভের

নিজস্ব প্রতিনিধি, কলকাতা : জল্পনা ও সংশয়ের অবসান। নির্ধারিত সূচি মেনে আগামী ৯ এপ্রিলই শুরু হতে চলেছে চতুর্দশ আইপিএল। বিসিসিআই সভাপতি সৌরভ গঙ্গোপাধ্যায় এই খবর জানিয়েছেন। পাশাপাশি মুম্বইয়ের ওয়াংখেড়ে স্টেডিয়ামে আইপিএল ম্যাচ আয়োজন নিয়ে ধোঁয়াশা কেটে গিয়েছে আজ। মহারাষ্ট্র সরকার শর্তসাপেক্ষে ওয়াংখেড়ে স্টেডিয়ামে আইপিএল ম্যাচ আয়োজনের অনুমতি দিয়েছে।

গত কয়েকদিন ধরে করোনা সংক্রমণ নতুনভাবে তীব্র আকার নেওয়ায় আইপিএল আয়োজন নিয়ে তৈরি হয়েছিল সংশয়। বিশেষ করে মুম্বইয়ের পরিস্থিতি রীতিমতো খারাপ হওয়ার পর সেখান থেকে ম্যাচ সরিয়ে বিকল্প হিসেবে হায়দরাবাদে নিয়ে যাওয়ার ব্যাপারে শুরু হয়েছিল আলোচনাও। শেষ পর্যন্ত এমন কিছু ঘটছে না। ভারতীয় ক্রিকেট কন্ট্রোল বোর্ডের তরফে আগেই ইঙ্গিত দেওয়া হয়েছিল, পরিস্থিতি যেমনই হোক না কেন মুম্বই থেকে অন্য কোনও শহরে ম্যাচ সরিয়ে নিয়ে যাওয়ার মতো পর্যাপ্ত সময় আর নেই। শেষ পর্যন্ত আজ মহারাষ্ট্রের সংখ্যালঘু উন্নয়ন মন্ত্রী নবাব মালিক জানিয়েছেন, ওয়াংখেড়ে স্টেডিয়ামেই আইপিএলের ম্যাচ হবে। তবে চূড়ান্ত সতর্কতার মধ্যে আয়োজন করতে হবে ম্যাচ।

- Advertisement -

করোনা সংক্রমণ ঠেকানোর জন্য আগামী শুক্রবার রাত ৮টা থেকে সোমবার সকাল ৭টা পর্যন্ত মহারাষ্ট্র জুড়ে লকডাউন ঘোষণা করা হয়েছে। শনিবার আইপিএলের প্রথম ম্যাচ থাকায় এমন সিদ্ধান্তের পর সমস্যা চরমে পৌঁছেছিল। আইপিএল ভবিষ্যৎ নিয়ে সংশয় তীব্র হয়েছিল। যদিও আজ মহারাষ্ট্র সরকারের সংখ্যালঘু উন্নয়ন মন্ত্রী বলেন, ওয়াংখেড়ে স্টেডিয়ামে ম্যাচ আয়োজনের অনুমতি দেওয়া হয়েছে। শর্ত হিসেবে জানানো হয়েছে, যাবতীয় বিধিনিষেধ মনে চলতে হবে সব পক্ষকেই। মাঠে দর্শক থাকবে না। ক্রিকেটারদের আলাদাভাবে হোটেলে থাকতে হবে। যাতায়াতও করতে হবে আলাদাভাবে। স্বাস্থ্য সংক্রান্ত কোনও নিয়মের ব্যতিক্রম ঘটানো যাবে না।

মহারাষ্ট্র সরকারের তরফে সরকারিভাবে ওয়াখেড়ে স্টেডিয়ামে আইপিএলের ম্যাচ আয়োজনের অনুমতি আসার আগেই বিসিসিআই সভাপতি জানিয়েছিলেন, নির্ধারিত সূচি মেনেই প্রতিযোগিতা হবে। সৌরভ বলেন, নির্ধারিত সূচি মেনেই আইপিএল হচ্ছে। দ্রুত ক্রিকেটারদের ভ্যাকসিন দেওয়ার বিষয়টিও চড়ান্ত করব আমরা। মহারাজের মন্তব্যের পরই মুম্বইয়ে আইপিএল আয়োজনের জট কেটে গিয়েছিল। আজ সরকারিভাবে ওয়াংখেড়ে স্টেডিয়ামে শর্তসাপেক্ষে ম্যাচ আয়োজনে শিলমোহর দেওয়া হল।