খুনের রহস্য তদন্তে জেলা পুলিশ সুপার

96

হেমতাবাদ, ২৯ জানুযারিঃ হেমতাবাদে যুবক খুনের রহস্য উদঘাটন করতে শুক্রবার ঘটনাস্থলে তদন্তে গেলেন রায়গঞ্জ পুলিশ জেলার পুলিশ সুপার সুমিত কুমার। পুলিশ সুপার জানান, গুলি করে রাজীব লোচন সরকার নামে ওই যুবককে খুন করা হয়েছে।তবে কি কারনে তাঁকে খুন করা হয়েছে, তা খতিয়ে দেখা হচ্ছে। গত বুধবার রাতে হেমতাবাদ ব্লকের চৈনগরের কাহালই ব্রিজ সংলগ্ন এলাকায় এক যুবকের রক্তাক্ত দেহ উদ্ধার হয়। মৃত যুবকের পরিচয় প্রাথমিকভাবে জানা যায়নি।

তবে তাঁকে যেখানে গুলি করে খুন করা হয়, সেই সংলগ্ন এলাকায় একটি মোটরবাইক উদ্ধার হয়েছিল। পুলিশ মৃতদেহের পাশ থেকে একটি তাজা কার্তুজ উদ্ধার করে। প্রথমে অনুমান করা হয়েছিল পথ দূর্ঘটনায় তাঁর মৃত্যু হতে পারে। তাই দুর্ঘটনা না খুন এই নিয়ে ধন্দে ছিল পুলিশ। রায়গঞ্জ মেডিকেল কলেজে ময়নাতদন্তের পর পুলিশ জানতে পারে রাজীবকে গুলি করে খুন করা হয়েছে। হেমতাবাদে নিয়ে গিয়ে যুবককে কে খুন করল তা জানতে নড়েচড়ে বসে পুলিশ। এদিন খুনের প্রকৃত কারন খুঁজতে ঘটনাস্থলে তদন্তে যান রায়গঞ্জ পুলিশ জেলার পুলিশ সুপার সুমিত কুমার। জেলা পুলিশ সুপার জানান, আশা করা হচ্ছে খুব শীঘ্রই খুনের ঘটনার রহস্য উদঘাটন করা সম্ভব হবে।

- Advertisement -

খুনের ঘটনাকে ঘিরে এলাকার সাধারণ মানুষের মধ্যে আতঙ্ক তৈরি হয়েছে। অপরদিক, হেমতাবাদের ভানৈল গ্রামের মৃত ২৩ বছরের যুবক রাজীব লোচন সরকারের পরিবারের সঙ্গে এদিন দেখা করতে গিয়েছিলেন সিপিএমের জেলা সম্পাদক অপূর্ব পাল।তিনি বলেন, তৃণমূলের শাসনে ক্ষমতার রাশ এখন সমাজবিরোধীদের হাতে। তাই দোষীদের চরম শাস্তির দাবিতে শনিবার সিপিএমের তরফে থানায় ডেপুটেশন দেওয়া হবে।