চেন্নাই, ৫ ডিসেম্বরঃ মহিলাদের ঘরে ও বাথরুমে গোপন ক্যামেরা লাগিয়ে দিনের পর দিন ফুটেজ সংগ্রহ করার অভিযোগ উঠল এক ব্যক্তির বিরুদ্ধে। অভিযুক্ত বাড়িওয়ালার নাম সম্পথ রাজ। চেন্নাইয়ের আদাম্বাক্কামের ঘটনা।

জানা গিয়েছে, অভিযুক্ত বাড়িওয়ালা সম্পথ রাজ স্ত্রী-সন্তানকে নিয়ে অন্য একটি বাড়িতে থাকেন। তাঁর ভাড়া দেওয়া বাড়ির বাথরুমে খোঁজ মিলেছে গোপন ক্যামেরার। মোট ৯টি ক্যামেরা পাওয়া গিয়েছে। ঘরের মধ্যে কোনও শব্দ হলেই কাজ করতে শুরু করত ক্যামেরাগুলি। বাথরুমের দরজা কেউ খুললেই সেই ক্যামেরা চলতে শুরু করত। চার ঘণ্টা পর্যন্ত ভিডিও রেকর্ড করার ক্ষমতা ছিল ক্যামেরাগুলির। একদিন বাথরুমের প্লাগ সকেট থেকে একটি ক্যামেরা খুলে পড়ে যায়। তখনই প্রকাশ্যে আসে বিষয়টি। সঙ্গে সঙ্গে পুলিশের দ্বারস্থ হন ওই বাড়ির মহিলারা। তাঁদের অভিযোগের ভিত্তিতে ওই বাড়িওয়ালাকে গ্রেফতার করে ঘটনার তদন্ত শুরু করে পুলিশ।

তবে, উদ্ধার হওয়া ক্যামেরাগুলি থেকে কোনও ফুটেজ পাওয়া যায়নি। তদন্তে জানা গিয়েছে, ডুপ্লিকেট চাবি ছিল অভিযুক্তের কাছে। যখন মহিলারা বাড়িতে থাকতেন না, তখন সম্পথ বাড়িতে ঢুকে সব ফুটেজ সংগ্রহ করে নিজের মোবাইলে বা ল্যাপটপে নিয়ে যেতেন। তাঁর কঠোর শাস্তির দাবি জানিয়েছেন অভিযোগকারিণীরা। ঘটনায় নিন্দার ঝড় উঠেছে দেশ জুড়ে। মহিলাদের নিরাপত্তা নিয়ে আরও একবার প্রশ্ন তুলে দিল এই ঘটনা।