শ্রীলঙ্কায় গোহত্যা নিষিদ্ধ হতে চলেছে

558

কলম্বো: গোহত্যা নিষিদ্ধ করার সিদ্ধান্ত নিতে চলেছে শ্রীলঙ্কা সরকার। সংসদীয় কমিটির বৈঠকের সময় গোহত্যা বন্ধ করার প্রস্তাব রাখেন শ্রীলঙ্কার প্রধানমন্ত্রী মাহিন্দা রাজাপাক্ষে। তার পরই অন্য সংসদরা তাঁর এই প্রস্তাবে সমর্থন জানান। এই ঘটনার পর বৌদ্ধদের দীর্ঘদিনের লড়াই সফল হতে চলেছে বলে মনে করা হচ্ছে। তবে, শ্রীলঙ্কার সরকার জানিয়েছে, দেশে কিছু মানুষের চাহিদা পূরণের জন্য অন্য দেশ থেকে গোমাংস আমদানি করা হবে।

শ্রীলঙ্কার জনসংখ্যার ৭০ শতাংশ মানুষ বৌদ্ধ ধর্মাবলম্বী। তাই সেই দেশে অধিকাংশ মানুষ গোহত্যার বিরোধিতা করছেন বহুদিন ধরে। গোহত্যার বিরুদ্ধে ২০১৩ সালের ২৬ জুন সিংহল রাভায়া সংগঠনের বৌদ্ধ ভিক্ষুরা কলম্বোয় প্রবল বিক্ষোভ প্রদর্শন করেছিলেন। সে সময় গোহত্যা নিষিদ্ধ করার দাবিতে একজন বৌদ্ধ ভিক্ষু গায়ে আগুন লাগিয়ে আত্মহত্যা পর্যন্ত করেছিলেন। সেই সময় শ্রীলঙ্কার সরকার গোহত্যা বন্ধ করার সিদ্ধান্ত আসতে ব্যর্থ হয়। তারপরেও শ্রীলঙ্কার বৌদ্ধরাও হাল ছাড়েননি। তাঁরা বছরের পর বছর নিজেদের দাবিতে অনড় ছিলেন। অবশেষে শ্রীলঙ্কায় গোহত্যা নিষিদ্ধি হওয়ার পথে।

- Advertisement -

জানা গিয়েছে, সংসদীয় কমিটির বৈঠকে রাজাপাক্ষে দাবি করেছিলেন, শ্রীলঙ্কার বেশিরভাগ মানুষ গোহত্যার বিরুদ্ধ। কারণ তাঁদের দেশের অনেক মানুষ গরুকে ঈশ্বররূপে পুজো করেন। তাই এক শ্রেণীর লোকের গোহত্যা আরেক শ্রেণীর লোকের ভাবাবেগে আঘাত হানে। শাসকদল শ্রীলঙ্কা পোদুজানা পেরামুনা খুব তাড়াতাড়ি দেশে গোহত্যা নিষিদ্ধ করার ঘোষণা করে দেবে।