স্বাস্থ্যসাথী কার্ড থাকা সত্ত্বেও আটকে অপারেশন, কাঠগড়ায় হাসপাতাল

238

জয়গাঁ: স্বাস্থ্যসাথী কার্ড থাকা সত্ত্বেও সরকারি হাসপাতালে অপারেশন না হওয়ার অভিযোগ তুলল দলসিংপাড়া চা বাগানের এক আদিবাসী যুবতী। ঘাড়ে অসহ্য যন্ত্রণা নিয়েই দিন কাটছে অসহায় ওই যুবতীর। দলসিংপাড়া চা বাগানের গুড্রি বাজার লাইনে বাড়ি সুমিত্রা মাহালির। বাবা চা বাগানের শ্রমিক ছিলেন। কিছু বছর আগে তাদের বাবা মারা যান। তারপর থেকে দুই বোন ও মা পরের বাড়িতে পরিচারিকার কাজ করেন। অকালেই পড়াশুনোর পাঠ চুকিয়ে ফেলতে হয় সুমিত্রাকে। বোন পরিচারিকার কাজ করে কষ্টের মধ্য দিয়ে পড়াশুনো চালাচ্ছে।

গত জুলাই মাসে সুমিত্রা মাহালি হঠাৎ করেই ঘাড়ে ব্যাথা অনুভব করে। প্রথম অবস্থায় চিকিৎসা না করালেও কয়েকদিন পর ব্যাথা বেশি হওয়ায় বীরপাড়ায় এক চিকিৎসককে দেখায় সুমিত্রা। বিভিন্ন টেস্টের পর সুমিত্রা জানতে পারে তার ঘাড়ে টিউমার হয়েছে। এরপর সুমিত্রা যায় আলিপুরদুয়ার হাসপাতালে। এরপর চিকিৎসক তাকে ১৭ সেপ্টেম্বর অপারেশনের তারিখ দেয়। কিন্তু সেদিন তার অপারেশন হয় না চিকিৎসকের অনুপস্থিতির কারণে। এরপর ১ অক্টোবর ফের আলিপুরদুয়ার হাসপাতালে যায় সে। ৫ তারিখ অপারেশনের তারিখ দেওয়া হয়। কিন্তু সেদিনও অপারেশন হয়না সুমিত্রার।

- Advertisement -

আলিপুরদুয়ার হাসপাতালের ডাঃ চিন্ময় বর্মন জানান, সুমিত্রা যে ডাক্তার দেখিয়েছিল তিনি বর্তমানে অসুস্থ।ছুটিতে রয়েছেন। তবে সুপার সুমিত্রাকে হাসপাতালে তার কার্যালয়ে দেখা করতে বলেছেন। অপারেশন হওয়ার আশ্বাস তিনি দিয়েছেন।