সদ্যোজাতর বস্তাবন্দি দেহ উদ্ধার

292

নিউজ ডেস্ক: একদিকে যে দেশে নারীকে মাতৃরূপে পুজো করা হয়, অন্যদিকে সেই দেশে আজও জন্মের পর মৃত্যুর মুখে ঠেলে দেওয়া হচ্ছে সদ্যোজাত শিশুকন্যাকে। কারন, আপত্তি কন্যাসন্তানে। এই কারনেই রাস্তার ধার থেকে উদ্ধার করা হল বস্তাবন্দি সদ্যোজাতের দেহ। সারারাত তীব্র ঠান্ডায় রাস্তার পাশে পড়ে থেকে অসুস্থ হয়ে পড়েছে সে। আপাতত হাসপাতালে চিকিৎসাধীন ওই সদ্যোজাত।

উত্তরপ্রদেশের রাজধানী থেকে ৮৫ কিলোমিটার দূরের মীরাটের ঘটনা। অভিযোগ, সদ্যোজাতের বাবা-মা তিনটি বস্তার মধ্যে ভরে তাকে রাস্তার পাশে ফেলে রেখে গিয়েছিলেন। যাতে শ্বাসরুদ্ধ হয়ে তার মৃত্যু হয়। রাস্তার ধার থেকে শিশুর তীব্র কান্নার আওয়াজ শুনতে পান পথচারীরা। সেই শব্দ শুনেই বস্তার ভিতর থেকে ওই ছোট্ট প্রাণকে উদ্ধার করেন তাঁরা। সঙ্গে সঙ্গে তাঁকে হাসপাতালে নিয়ে যান তাঁরা।

- Advertisement -

উল্লেখ্য, ‘বেটি বাঁচাও, বেটি পড়াও’-এর মতো প্রকল্প আনছে কেন্দ্রীয় সরকার। ভ্রুণ বা শিশুকন্যার মৃত্যু রুখতে প্রচার চলছে। কিন্তু তাতে যে কাজের কাজ কিছুই হয়নি, এবার তা ফের প্রমাণিত হয়ে গেল।

অন্যদিকে, মীরাট পুলিশের তরফে জানানো হয়েছে, শতাব্দিনগরের রাস্তার পাশে সদ্যোজাত কন্যা পড়েছিল। পথচারীদের তৎপরতায় তাকে উদ্ধার করা হয়। আপাতত হাসপাতালে চিকিৎসাধীন সে। সুস্থই রয়েছে সে। তবে কে বা কারা এহেন ঘটনা ঘটালো, তা খতিয়ে দেখা হচ্ছে।