নির্দিষ্ট পরিকল্পনাতেই সাফল্য, বলছেন সিরাজ

নয়াদিল্লি: ভারতের সদ্যসমাপ্ত অস্ট্রেলিয়া সফরের গোটাটা জুড়েই লড়াই, তরুণদের নিয়ে রূপকথা তৈরির কাহিনি। অন্যতম মুখ মহম্মদ সিরাজ সাফল্যের রহস্য ভেদ করে জানালেন, পুরো শক্তির অজি ব্যাটিংয়ের বিরুদ্ধে অনভিজ্ঞ বোলিং নিয়ে লড়াই সহজ ছিল না। কিন্তু অস্ট্রেলিয়া সফরে অন্য চ্যালেঞ্জগুলির মতো এটাও মাথা উঁচু করে সামলেছে ভারত। বোলাররা দুই প্রান্ত থেকে চাপ তৈরি করে উইকেট তুলেছেন।

ব্রিসবেনে মাত্র দুটি টেস্টের অভিজ্ঞতা নিয়ে বোলিংয়ে নেতৃত্ব দিয়েছেন। শার্দূল ঠাকুরকে নিয়ে দায়িত্বে সফল সিরাজের কথায়, দলের সিনিয়ার বোলাররা চোটের জন্য বাইরে। নিশ্চিতভাবে যা চাপের। সাপোর্ট ও কোচিং স্টাফরা দারুণভাবে পরিস্থিতি সামলেছেন। আমরাও নিজের মতো করে পরিকল্পনা করেছি। অজি ব্যাটসম্যানদের কীভাবে চাপে ফেলা যায়, তা নিয়ে শার্দূল-আমি নিজেদের ভাবনাটা শেয়ার করেছিলাম ম্যাচের আগে। মূল লক্ষ্য ছিল দুই প্রান্ত থেকেই চাপ তৈরি করা। জানতাম, তা পারলে ওরা ভুল করবেই। সেটাই হয়েছে।

- Advertisement -

ব্রিসবেন ম্যাচের নায়ক ঋষভ পন্থ। বল হাতে সিরাজ-শার্দূলের যুগলবন্দি। তবে বর্ডার-গাভাসকার ট্রফিটা রাহানে তুলে দেন নটরাজনের হাতে। যে প্রসঙ্গে সিরাজ জানান, আজ্জি ভাই ও রবি স্যার ঠিক করেছিলেন ট্রফিটা নটরাজন ধরবে। ওর অভিষেক সিরিজ। নেট বোলার থেকে তিন ফর্ম্যাটে অভিষেক। চুপচাপ, কম কথা বলে। কিন্তু বলটা দুর্দান্ত করে, বিশেষত ইয়র্কারটা।