বর্ধমান, ২৮ ফেব্রুয়ারিঃ বৌমা কানের দুল চুরির মিথ্যা অপবাদ দেওয়ায় অপমানে আত্মঘাতী হল শাশুড়ি। শুক্রবার সকালে এই ঘটনার জেরে ব্যাপক চাঞ্চল্য ছড়িয়েছে পূর্ব বর্ধমানের কালনার গোবিন্দবাটি গ্রামে। মৃতার নাম কনিকা দেবনাথ (৫০)। তিনি গোবিন্দবাটি গ্রামেরই বাসিন্দা। শুক্রবার কালনা মহকুমা হাসপাতাল পুলিশ মর্গে কনিকাদেবীর মৃতদেহের ময়নাতদন্ত হয়।
পুলিশ ও স্থানীয় সূত্রে জানা গিয়েছে, ছেলের বিয়ের পর থেকেই বৌমার সঙ্গে কনিকা দেবনাথের মনোমালিন্য তৈরি হয়। মায়ের সঙ্গে বনিবনা না হওয়ায় কনিকাদেবীর ছেলে তাঁর স্ত্রীকে নিয়ে আলাদা থাকত। তা সত্ত্বেও শাশুড়ি ও বৌমার মধ্যে কথা কাটাকাটি  লেগেই থাকত। অভিযোগ বৌমা শুক্রবার  সকালে তাঁর শাশুড়ি কনিকাদেবীকে কানের সোনার দুল চুরি করার  অপবাদ দেয়। অপমানিত কনিকাদেবী  মিথ্যা অপবাদের কথা পরিবারের অন্যদের জানিয়েই বাড়িতে থাকা সুতো রং করার রাসায়নিক খেয়ে নেন। এরপর পরিবারের লোকজন আশঙ্কাজনক অবস্থায় তাকে উদ্ধার করে কালনা মহকুমা  হাসপাতালে নিয়ে যায়। কিছুক্ষণ পর সেখানেই তাঁর মৃত্যু হয়। কালনা থানার পুলিশ জানিয়েছে ঘটনার তদন্ত শুরু হয়েছে।