ভোটে শুভেন্দুর বিপক্ষে লড়ার চ্যালেঞ্জ সুজাতার

327

বর্ধমান, ২৪ ডিসেম্বরঃ বিজেপিতে যোগ দেওয়ার পর পূর্ব বর্ধমানের পূর্বস্থলীর ছাতনির ফুটবল মাঠে অনুষ্ঠিত জনসভায় বিজেপি নেতা হিসাবে অভিষেক হয়েছিল শুভেন্দু অধিকারীর। গত মঙ্গলবার সেই সভায় বক্তব্য রাখতে উঠে তৃণমূল নেত্রী ও তাঁর ভাইপো অভিষেক বন্দ্যোপাধ্যায়কে উদ্দেশ্য করে বেনজির আক্রমণ শানিয়ে ছিলেন তৃণমূল ত্যাগী শুভেন্দু অধিকারী। ওই দিন তিনি তৃণমূল কংগ্রেসকে তোলাবাজ দল বলে কটাক্ষ করার পাশাপাশি বলেছিলেন, তোলাবাজ ভাইপো হাটাও, বাংলা বাঁচাও। বিজেপির রাজ্য সভাপতি দিলীপ ঘোষ ওই দিন শুভেন্দুর মুখ থেকে এইসব কথা শুনে খুশি হয়েছিলেন ঠিকই। তবে, ওই দিনই একই এলাকার বিশ্বরম্ভার মাঠে পালটা জনসভার আয়োজন করে বিজেপি ও শুভেন্দুকে যোগ্য জবাব দেওয়ার সিদ্ধান্ত নিয়েছিল তৃণমূল নেতৃত্ব।

বিজেপির ওই সভার ঠিক দু’দিনের মাথায় বৃহস্পতিবার একই এলাকায় অনুষ্ঠিত হল তৃণমূলের জনসভা। সেই সভা থেকে বিজেপি ও শুভেন্দু অধিকারীরকে কার্যত তুলোধনা করলেন একের পর এক তৃণমূল নেতা। তাঁদের মধ্যে সদ্য বিজেপি ছেড়ে তৃণমূলে যোগ দেওয়া সুজাতা মণ্ডল খাঁ ছিলেন অন্যতম। রাজ্য বিজেপি যুব মোর্চার সভাপতি তথা সাংসদ সৌমিত্র খাঁর স্ত্রী সুজাতা এদিন কড়া ভাষায় শুভেন্দুকে আক্রমন করেন। এমনকি শুভেন্দুর উদ্দেশ্যে চ্যালেঞ্জও ছুঁড়ে দেন সুজাতা। তিনি জানিয়ে দেন, ২০২১ বিধানসভা নির্বাচনে শুভেন্দু অধিকারী যে আসনে দাঁড়িয়ে ভোটে লড়বেন, সেই আসনেই ভোটে লড়ে তিনি শুভেন্দুকে জামানতজব্দ করে দেবেন। যদিও, কাঁথির রোড শো থেকে
বিজেপি নেতা শুভেন্দু এদিন ঘোষণা করেন আগলি বার, দু‘শো পার। একই সঙ্গে তৃণমূলকে
হঠাতে, একজোট হয়ে লড়ার বার্তাও এদিন রোড শো থেকে দলের কর্মীদের উদ্দেশ্যে দিতে দেখা গিয়েছে শুভেন্দু অধিকারীকে।

- Advertisement -

সুজাতা মণ্ডল খাঁ এদিন আরও বলেন, কথা দিয়ে যাচ্ছি তৃতীয় বারের জন্য তৃণমূল কংগ্রেসকে পশ্চিমবঙ্গের মসনদে বসাবো। এবার প্রিয় নেত্রী মমতা বন্দ্যোপাধ্যায়কে মুখ্যমন্ত্রী করার জন্য এই সুজাতা শেষ রক্ত বিন্দু পর্যন্ত প্রস্তুত থাকবে। তিনি দলের কর্মীদের উদ্দেশ্যে আরও বলেন, আপনারা আমার পাশে থাকুন, কীভাবে মমতা বন্দ্যোপাধ্যায়কে তৃতীয় বারের জন্য মুখ্যমন্ত্রী করতে হয়, তা দেখিয়ে দেব। বিজেপিকে কোনওভাবেই ক্ষমতায় আসতে দেব না। বিজেপিতে পরিবারতন্ত্রের প্রসঙ্গ তুলে তিনি বলেন, কৈলাশ বিজয়বর্গীয়র ছেলে আকাশ বিজয়বর্গীয়, মুকুল রায়ের ছেলে শুভ্রাংশু রায়, অর্জুন সিংয়ের ছেলে পবন সিং সকলেই সাংসদ। অর্জুন সিংয়ের একটা বাড়ি থেকে ৪ জন পদে রয়েছেন। এছাড়াও, প্রতিরক্ষা মন্ত্রী রাজনাথ সিংয়ের ছেলে পঙ্কজ সিং সাংসদ।

এরপরও, বিজেপি বলছে ওরা নাকি পরিবার তন্ত্র মানে না। এর জবাব বাংলার মা-বোনেদের দিতে হবে। শুভেন্দু অধিকারীকে চ্যালেঞ্জ ছুঁড়ে দিয়ে সুজাতা বলেন, আমার দলনেত্রী মমতা বন্দোপাধ্যায় এবং যুবনেতা অভিষেক বন্দ্যোপাধ্যায়ের কাছ থেকে যদি অনুমতি পাই, তবে পশ্চিমবঙ্গে ২৯৪ টি আসনের যে কোনও আসনে শুভেন্দু বিপক্ষে দাঁড়িয়ে জামানতজব্দ করে ছাড়বে। আর যদি শুভেন্দু না দাঁড়ান, তাহলে বুঝবো আপনি ভয় পেয়েছেন।