ঋষভের সাফল্যে ঋদ্ধির হাত দেখছেন সানি

চেন্নাই : স্পাইডারম্যান।

ঋদ্ধিমান সাহা সম্পর্কে বহুবার শব্দটা ব্যবহৃত হয়েছে। আপাতত ঋষভ পন্থের নামের সঙ্গে ক্রমশ জুড়ে যাচ্ছে স্পাইডারম্যান শব্দটা। অস্ট্রেলিয়া সফরের সময় আইসিসি ঋষভকে স্পাইডারম্যান আখ্যা দিয়ে মজাদার ছবি পোস্ট করেছিল।  এদিন স্পাইডারম্যান ঋষভের ছবিতে রীতিমতো ভাইরাল সোশ্যাল মিডিয়া। দুরন্ত উইকেটকিপিং, দর্শনীয় জোড়া ক্যাচে স্পাইডারম্যান বিশেষনটাই একদম যথাযথ।

- Advertisement -

ঘূর্নি পিচ। অশ্বীন-অক্ষর-কুলদীপদের স্পিনে কিপিং অ্যাসিড টেস্ট ছিল। লেটারমার্কস সহ পাশ এদিন। ইংল্যান্ডের গোটা ইনিংসে যে দক্ষতা দেখালেন, অতি বড় ঋষভপ্রেমীও অবাক হবেন। কোন জাদুবলে এই পরিবর্তন? কারও মতে,  আত্মবিশ্বাসের প্রতিফলন। টানা ব্যাটিং সাফল্যের ছাপ পড়ছে কিপিংয়ে। তবে সুনীল গাভাসকার, আশিস নেহেরারা কিন্তু ঋষভের সাফল্যের পিছনে ঋদ্ধিমান সাহার হাত দেখছেন!

ঋষভের দুরন্ত কামব্যাকের কারণে রিজার্ভ বেঞ্চে ঠাঁই হয়েছে ঋদ্ধির। কিন্তু তাতে কী। জুনিয়ার সতীর্থের শেখার ইচ্ছেটা উসকে দিচ্ছেন ঋদ্ধিই। দ্বিতীয় দিনের শেষে সুনীল গাভাসকার বলেন, শুনেছি দিনের শেষে ঋদ্ধিমানের সঙ্গে অনেকটা সময় কাটায় ঋষভ। উইকেটকিপিং নিয়ে আলোচনা করে ওরা। আমার ধারণা, যার ফলেই ঋষভের উইকেটকিপিংয়ে এই উন্নতি। কোনও সন্দেহ নেই ঋদ্ধিমান দেশের এক নম্বর উইকেটকিপার। কিন্তু দল অলরাউন্ডার-উইকেটকিপারের পক্ষে। তাই ঋষভ। আর ঋষভও ভালো খেলছেও। একইসঙ্গে সিনিয়ার সতীর্থ ঋদ্ধিমানের থেকে শেখার ইচ্ছেটাও কিপিংয়ে ওকে এগিয়ে দিচ্ছে।

আশিস নেহেরাও স্যার ঋদ্ধি প্রসঙ্গে বলেন, শেখার আগ্রহটা গুরুত্বপূর্ণ। ঋষভের মধ্যে যা ভীষণভাবে রয়েছে। আর ঋদ্ধিমান হোক বা অন্য কোনও সিনিয়ার, প্রত্যেকেই জুনিয়ারদের পাশে সবসময় থাকে। এটাই দলের প্লাস পয়েন্ট। উপকৃত হন জুনিয়াররা। ঋদ্ধিমানের থেকে সেটাই পাচ্ছে ঋষভও।

দুটি দর্শনীয় ক্যাচের প্রথমটা ওলি পোপের। লেগ স্লিপের স্থান দিয়ে বল সীমানার দিকে উড়ে যাচ্ছিল। কিন্তু ঋষভের বাজপাখির ছোঁয়ে প্যাভিলিয়নে পোপ। বাঁহাতে বল ধরার পর শরীর মাটি ছোঁয়ার পর গ্রিপ থেকে ক্যাচ বেরিয়ে গিয়েছিল। কিন্তু চোখ না সরানোর সুফল- দ্বিতীয় প্রচেষ্টায় একই ফলো থ্রুতে বল জমা ঋষভের দস্তানায়। জ্যাক লিচের ক্যাচেও তারই পুনরাবৃত্তি। এক্ষেত্রে দ্বিতীয় প্রচেষ্টার প্রযোজন পড়েনি। অ্যাক্রোবেটিক স্কিলে ওয়ান হ্যান্ডেড ক্যাচ।