দ্বিতীয়বার করোনায় আক্রান্ত কোভিড হাসপাতালের সুপার

2052

রায়গঞ্জ: দ্বিতীয়বার করোনায় আক্রান্ত হলেন রায়গঞ্জ কোভিড হাসপাতালের সুপার ডাঃ দিলীপকুমার গুপ্তা। তিনমাসের মধ্যে দ্বিতীয়বার কোভিড পজিটিভ হলেন ওই চিকিৎসক। জুলাই মাসের ২৭ তারিখ করোনা আক্রান্ত হয়ে রায়গঞ্জ কোভিড হাসপাতালে ভর্তি হয়েছিলেন। এরপর সুস্থ হয়ে কাজে যোগ দেন তিনি।

২৮ সেপ্টেম্বর বাবা-মাকে দেখতে বিহারে যান সুপার। সেখানে অসুস্থ হয়ে পড়েন তিনি। কোয়ারান্টিনে থাকার সময় ২৯ তারিখ তাঁর লালার নমুনা নেওয়া হয়। বৃহস্পতিবার সকালে পজিটিভ রিপোর্ট আসতেই রীতিমত হুলুস্থুল কাণ্ড বেঁধে যায়। তাঁর করোনা আক্রান্তের রিপোর্ট জেলা স্বাস্থ্য দপ্তরে আসতেই রীতিমত আতঙ্কে রয়েছেন মিক্কিমেঘা কোভিড হাসপাতালের নার্স এবং স্বাস্থ্যকর্মীরা।

- Advertisement -

ডাঃ দিলীপকুমার গুপ্তার বাড়ি বিহারের বৈশালী জেলার হাজিপুর এলাকায়। যদিও ছোট থেকে পড়াশোনা কলকাতাতেই। পশ্চিমবঙ্গ থেকে এমবিবিএস পাশ করার পর বেসরকারি হাসপাতালের একাধিক বিভাগ সামলেছেন তিনি। ২০১৬ সালের মেডিকেল অফিসার পদে যোগ দেন দিলীপবাবু। কোভিড হাসপাতাল চালু হওয়ার প্রথম দিনই তাঁকে সুপার পদে নিয়োগ করেন জেলা মুখ্য স্বাস্থ্য আধিকারিক।

ছ’মাস ধরে কোনও ছুটি পাচ্ছিলেন না পেয়ে দিনচারেক আগে মুখ্য স্বাস্থ্য আধিকারিককে চিঠি দিয়ে বাড়ির উদ্দেশ্যে রওনা দেন তিনি। ছুটির আবেদনে শারীরিক অসুস্থতা সহ মা-বাবাকে দেখতে যাওয়ার কথা লেখেন তিনি। এর আগে মোট ছবার লিখিত আবেদন করেছিলেন স্বাস্থ্য দপ্তরের কর্তাদের। তাতে কাজ না হওয়ায় বাধ্য হয়েই বাড়ির উদ্দেশ্যে রওনা দেন তিনি।

রওনা দেওয়ার ঘণ্টাদুয়েকর মধ্যেই তাঁকে শোকজ করেন জেলা মুখ্য স্বাস্থ্য আধিকারিক কার্তিকচন্দ্র মণ্ডল।বাড়িতে ঢোকার সঙ্গে সঙ্গেই কোয়ারান্টিনে যেতে হয় ওই চিকিৎসককেকে। ২৯ তারিখ তাঁর লালার নমুনা সংগ্রহ করেন পাটনা কোভিড হাসপাতাল। এদিন রিপোর্ট পজিটিভ আসে। তিনমাসে দুবার করোনা পজিটিভ হওয়ায় রীতিমত চিন্তায় রয়েছেন মেডিসিন বিভাগের চিকিৎসকেরাও।