কেরলের সাংবাদিক গ্রেপ্তারি নিয়ে যোগী সরকারকে নোটিশ সুপ্রিমকোর্টের

349

নয়াদিল্লি: হাথরস যাওয়ার পথে কেরলের সাংবাদিক সিদ্দিকি কাপ্পানকে গ্রেপ্তারের ঘটনায় উত্তরপ্রদেশের যোগী আদিত্যনাথের সরকারকে নোটিশ পাঠাল সুপ্রিমকোর্ট। তাঁর গ্রেপ্তারিকে চ্যালেঞ্জ জানিয়ে এবং জামিন চেয়ে সুপ্রিমকোর্টে একটি পিটিশন দাখিল হয়েছে। সোমবার তার শুনানি করতে গিয়ে উত্তরপ্রদেশ সরকারকে নোটিশ ধরিয়েছে প্রধান বিচারপতি এসএ বোবদের নেতৃত্বাধীন তিন সদস্যের বেঞ্চ।

কেরল ইউনিয়ন অফ ওয়ার্কিং জার্নালিস্ট ওই মামলাটি করেছে। তাদের আর্জি, কাপ্পানকে আইনি সহায়তা এবং পরিবারের সঙ্গে সাক্ষাতের মতো মৌলিক অধিকার দিতে হবে। হাথরসের নির্যাতিতার পরিবারের সঙ্গে কথা বলতে ওই সাংবাদিক গত ৫ অক্টোবর মথুরা থেকে রওনা দিয়েছিলেন। কিন্তু মাঝরাস্তায় তাঁকে গ্রেপ্তার করে যোগীর পুলিশ। তাঁর বিরুদ্ধে ইউএপিএ তে মামলা রুজু করা হয়।

- Advertisement -

মামলাকারীরা আর্জি জানিয়েছেন, সুপ্রিমকোর্ট যেন মথুরা জেলে বন্দি ওই সাংবাদিকের মানবাধিকার লঙ্ঘন হচ্ছে কিনা দেখার জন্য মথুরা জেলা আদালত অথবা হাইকোর্টের এক বিচারপতিকে খোঁজখবর নেওয়ার নির্দেশ দেন। আগামী শুক্রবার এই মামলার পরবর্তী শুনানির দিন ধার্য্য হয়েছে। প্রধান বিচারপতি এদিন মামলাকারীদের কাছে জানতে চান, কেন তাঁরা সরাসরি সুপ্রিমকোর্টের দ্বারস্থ হয়েছেন। কেন তাঁরা এলাহাবাদ হাইকোর্টের দ্বারস্থ হননি। সুপ্রিমকোর্ট এই মামলাটি এলাহাবাদ হাইকোর্টের কাছে পাঠানোর ব্যাপারে চিন্তাভাবনা করলেও তাতে আপত্তি রয়েছে সিবালের। গত সেপ্টেম্বরে হাথরসে এক দলিত তরুণীর গণধর্ষণের ঘটনায় উত্তাল হয়েছিল সারাদেশ। এদিন উত্তরপ্রদেশ সরকারের বক্তব্য আগে শোনা হবে বলে জানিয়েছে তিন বিচারপতির বেঞ্চ। এদিন সিবাল শীর্ষ আদালতকে বলেন, সাংবাদিক জেলে রয়েছেন। এর আগেও সুপ্রিমকোর্ট এই ধরনের মামলায় রায় দিয়েছে।