পৃথ্বী-সূর্যকে নিয়ে ধোঁয়াশায় কোহলিরা

নিজস্ব প্রতিনিধি, কলকাতা : ধন্যবাদ ডারহ্যাম ক্রিকেট। আমরা আমাদের সময় উপভোগ করলাম।

টুইটারে ছোট্ট একটা লাইন। আর তার মাধ্যমেই ডারহ্যাম ক্রিকেটকে ধন্যবাদ জানিয়ে নটিংহ্যামে পৌঁছে গেল বিরাট কোহলির ভারত।

- Advertisement -

ডারহ্যাম থেকে নটিংহ্যাম প্রায় ১৪৪ মাইল পথ। তিন ঘণ্টার কিছু বেশি সময়ে সেই পথ পাড়ি দিয়ে জো রুটদের বিরুদ্ধে সিরিজের প্রথম টেস্ট খেলার জন্য রবিনহুডের শহরে পৌঁছে গেলেন কোহলিরা। নটিংহ্যামের ট্রেন্ট ব্রিজের মাঠে ৪ অগাস্ট থেকে প্রথম টেস্ট খেলতে নামার আগে টিম ইন্ডিয়া নিজেদের মধ্যে অনুশীলন ম্যাচ খেলবে। ভারতীয় দলকে বিদায় জানানোর পাশে ডারহ্যাম কাউন্টির তরফে অক্ষর প্যাটেল ও ঋষভ পন্থের হাতে তাদের জার্সি তুলে দেওয়া হয়েছে।

দীর্ঘ পথ পাড়ি দিয়ে বিলেতের এক শহর থেকে অন্যত্র পৌঁছানোর মাঝে টিম ইন্ডিয়া আসন্ন সিরিজ নিয়ে আলোচনার পাশে দলের দুই নয়া সদস্যের গতিবিধি নিয়ে ভাবনায় বুঁদ। পৃথ্বী শ ও সূর্যকুমার যাদব ঠিক কবে লন্ডন পৌঁছাবেন, রাত পর্যন্ত স্পষ্ট নয়। আদৌ কি তাঁরা ইংল্যান্ড যাচ্ছেন? আজ যুযবেন্দ্র চাহাল ও কৃষ্ণাপ্পা গৌতম নতুনভাবে করোনা পজিটিভ হওয়ার পর পৃথ্বীদের বিলেত যাত্রা নিয়ে সংশয় দানা বাঁধছে। তৈরি হচ্ছে ধোঁয়াশাও। যদিও রাতের দিকে বোর্ডের একটি সূত্র থেকে দাবি করা হয়েছে, কালই কলম্বো থেকে লন্ডন উড়ে যাচ্ছেন পৃথ্বীরা। সরকারিভাবে এব্যাপারে বিসিসিআই কোনও মন্তব্য করেনি।

পাশাপাশি পৃথ্বী ও সূর্যের অপেক্ষায় থাকা কোহলিদের জন্য আজ সামনে এসেছে বেশ কয়েকটি তথ্য। জানা গিয়েছে, কলম্বোতে আইসোলেশনে থাকা টিম ইন্ডিয়ার দুই ক্রিকেটারকে টানা তিনটি করোনা পরীক্ষায় নেগেটিভ হতে হবে। তাহলেই আইসোলেশন শেষ করে শ্রীলঙ্কা থেকেই ইংল্যান্ড উড়ে যেতে পারবেন তাঁরা। পরে বিলেত পৌঁছানোর পর পৃথ্বীদের বাধ্যতামূলক কোয়ারান্টিনে থাকতে হবে। তার মধ্যে ফের তাঁদের করোনা পরীক্ষাও হবে। সেই কোয়ারান্টিনের সম্ভাব্য মেয়াদ নিয়ে ধোঁয়াশা রয়েছে।