করোনায় মৃত্যু সন্দেহে শ্মশান থেকে দেহ তুলে নিয়ে গেল পুলিশ

434

বর্ধমান: করোনায় মৃত্যু সন্দেহে শ্মশান ঘাট থেকে বৃদ্ধার মৃতদেহ তুলে নিয়ে পুলিশ। শনিবার পূর্ব বর্ধমানের পূর্বস্থলীর জাহান্নগর পঞ্চায়েতের কুটিরপাড়া এলাকায় এই ঘটনায় চাঞ্চল্য ছড়ায়। মৃতের পরিবারের দাবি, শুধুমাত্র সন্দেহের কারণে পুলিশ শ্মশান থেকে মৃতদেহ তুলেনিয়ে যাওয়ায় তারা হতবাক।

পূর্বস্থলীর জাহান্নগরের কুটির পাড়ার বাসিন্দা মৃত বৃদ্ধার ছেলের দাবি, শুক্রবার রাতে তার মা সত্তরোর্ধ্ব করুণা বিশ্বাস হৃদরোগে আক্রান্ত হয়ে মারা যায়। কিন্তু এলাকার কয়েকজন বাসিন্দা সন্দেহ করেন করোনা আক্রান্ত হয়েই তাঁর মায়ের মৃত্যু হয়েছে। এদিন সৎকার্যের জন্য পরিবারের লোকজন মৃতদেহ পূর্বস্থলীর জাহান্নগর শ্মশানঘাটে নিয়ে যান। অভিযোগ তখনই এলাকার লোকজনের মধ্যে কেউ পুলিশে খবর দিয়ে জানায় করোনা আক্রান্ত হয়ে বৃদ্ধার মৃত্যু হয়েছে। সেই খবর পেয়ে নাদনঘাট থানার পুলিশ তড়িঘড়ি শ্মশানঘাটে পৌঁছয়। দাহকার্য সম্পন্ন করতে না দিয়েই ময়নাতদন্তের জন্য পুলিশ মৃতদেহ তুলে নিয়ে চলে যায়।

- Advertisement -

যদিও পুলিশের বক্তব্য ‘করোনা আবহে প্রশাসনিক নিয়ম মেনেই সব কিছু করা হয়েছে। ময়না তদন্তের রিপোর্ট পর্যালোচনা করেই পরবর্তী সিদ্ধান্ত নেওয়া হবে।’ অন্যদিকে এলাকাবাসীর একাংশের বক্তব্য, ময়নাতদন্ত হলেই বৃদ্ধার মৃত্যুর প্রকৃত কারণ জানা যাবে।