মৃতদেহও ধর্ষণ করে তালিবান, দাবি আফগান মহিলার

372

নয়াদিল্লি: বন্দুকের জোরে আফগানিস্তানে ক্ষমতা দখল করেছে তালিবান। গুলি করে মানুষ খুন করা এদের কাছে কোনও ব্যাপারই নয়। কিন্তু এবার সামনে এসেছে তালিবানের আরও একটি ভয়ানক রূপ। মহিলাদের মৃতদেহও ধর্ষণ করতে ছাড়ছে না তালিবান জঙ্গিরা, এমনই দাবি করেছেন দিল্লিতে আশ্রয় নেওয়া মুসকান নামে আফগানিস্তানের এক মহিলা পুলিশকর্মী। দিল্লি পৌঁছে তিনি একটি সংবাদমাধ্যমকে তাঁর নিজের চোখে দেখা সেই ভয়ঙ্কর অভিজ্ঞতার কথা শুনিয়েছেন।

তালিবান ক্ষমতায় এসেই জারি করেছে একের পর এক ফতোয়া। ১৫ অগাস্ট কাবুল দখল করে তালিবান। তারপর থেকে মহিলাদের ওপর অত্যাচার আরও বেড়েছে। মহিলারা প্রাণ ভয়ে বিভিন্ন দেশে পাড়ি দিচ্ছেন। আর যাঁরা আফগানিস্তানে থেকে যাচ্ছেন, তাঁরা তালিবানের নির্যাতনের শিকার হচ্ছেন। তালিবানি ফতোয়া না মানলেই মহিলাদের খুন বা ধর্ষণ করছে জঙ্গিরা।

- Advertisement -

এবার জানা গেল আরও একটি চমকে দেওয়া মতো তথ্য। ওই নরপিশাচরা নাকি মৃতদেহও ধর্ষণ করে! আফগানিস্তানের মহিলা পুলিশকর্মী মুসকান জানান, তালিবানরা বাড়ি থেকে মহিলাদের তুলে নিয়ে যাচ্ছে। তাঁদের ধর্ষণ করছে, খুন করছে। অনেক তালিবান জঙ্গি রয়েছে, যারা মহিলাদের মৃতদেহ ধর্ষণ করেও আনন্দ পায়, এমনই দাবি মুসকানের। তাঁর কথা শুনে শিউড়ে উঠেছেন শুভবুদ্ধি সম্পন্ন সকলেই।