আফগানিস্তানের জয়ে তালিবানি শুভেচ্ছা

দুবাই : দেশের দখল তালিবানের হাতে যাওয়ার পর কিছুটা একঘরে হয়ে গিয়েছিলেন। অস্ট্রেলিয়া সিরিজ বাতিল করেছে। এমনকি বিশ্বকাপের মঞ্চ থেকেও ছুড়ে ফেলার দাবি উঠছিল ইতিউতি। কিন্তু সোমবার স্কটল্যান্ডকে উড়িয়ে দিয়ে ফের মর্জাদার আসনে আফগান ক্রিকেটাররা। এমনকি দেশ থেকে দুরন্ত জয়ের শুভেচ্ছা জানিয়েছে তালিবানও।

তালিবানের উত্থানের পর মাত্র কয়েকটি স্বস্তির জায়গা রয়েছে আফগানিস্তানের। তার মধ্যে ক্রিকেট একটি। কারণ প্রতিপ্রক্ষকে হারাতে মধ্যযুগীয় বর্বরতাকে হাতিয়ার করলেও ব্যাট-বলের লড়াই ভালোবাসে তালিবান। স্কটদের ১৩০ রানের বিশাল ব্যবধানে হারানোর পর তাই মুজিব উর রহমান, রশিদ খানদের শুভেচ্ছা জানিয়েছেন তালিবানের মুখপাত্র জাবিউল্লা মুজাহিদ। তাঁর টুইট, টি২০ বিশ্বকাপে আফগান দলের জয়ের জন্য আফগানদের অভিনন্দন। দলের আরও সাফল্য কামনা করি। এর আগে আফগান দলের প্রোটিয়া হেডস্যর ল্যান্স ক্লুজনার দাবি করেন, তালিবানরা ক্রিকেট ভালোবাসে।

- Advertisement -

অথচ মাসখানেক আগে এই তালিবানদের জন্য বিশ্বকাপের দরজা বন্ধ হতে বসেছিল আফগানদের সামনে। সোমবার ম্যাচের আগে জাতীয় সংগীত চলাকালীন সেই কথাই হয়তো মনে পড়েছিল অধিনায়ক মহম্মদ নবির। চোখের জল মুছতে দেখা যায় হঠাৎ করে নেতৃত্বের ব্যাটন পাওয়া এই অলরাউন্ডারকে। ম্যাচ শেষে বললেন, আমাদের লক্ষ্যই ছিল আগে ব্যাট করে বড় স্কোর করা। টপ অর্ডার সেটা ভালোভাবেই করেছে। মুজিব আর রশিদ এখন বিশ্বের অন্যতম সেরা স্পিনার। আমরা এভাবেই জয়ের ধারা বজায় রাখতে চাই।

স্পিনার মুজিবের বিশেষ প্রশংসা শোনা গিয়েছে নবীর মুখে। তিনি বলেন, বিশ্বকাপের মতো মঞ্চে এটাই ওর প্রথম ম্যাচ। সেখানে ও ম্যাচের সেরা হয়েছে। মুজিব নিজে বলছেন, এই জয় আর পুরস্কার সবই দেশের জন্য। দর্শকদের সমর্থন আমাকে শক্তি যোগাচ্ছে। গ্যালারির আওয়াজ আমাদের জয়ের অনুঘটক হিসেবে কাজ করছে। তবে আত্মতুষ্ট হতে নারাজ আফগানরা। পেসার নবীন উল হকের কথায়, এই জয় উপভোগ্য। তবে এটাই শেষ নয়। এখনও কয়েকটা ম্যাচ বাকি।

সেই লক্ষ্যেই শুক্রবার প্রতিবেশী পাকিস্তানের বিরুদ্ধে নামবেন আফগানরা।