রথযাত্রার দিন খুলছে তারাপীঠ মন্দির

ফাইল ছবি

আশিস মণ্ডল, রামপুরহাট: ৩ মাস পর রথের দিন থেকে পুণ্যার্থীদের জন্য খুলে যাচ্ছে তারাপীঠ মন্দিরের দরজা। তবে এই মুহূর্তে কোনও পুণ্যার্থী গর্ভগৃহে প্রবেশ করতে পারবেন না। বাইরে থেকেই মা তারার দর্শন করতে হবে। রথের দিন মন্দির খোলা হলেও চলবে না রথ।

১৮ মার্চ থেকে তারাপীঠ মন্দির পুণ্যার্থীদের জন্য বন্ধ করে দেওয়া হয়। প্রতিদিন নিত্যপুজো হলেও কোনও মানুষ মন্দিরে প্রবেশ করতে পারতেন না। রাজ্য সরকার ১ জুন থেকে সমস্ত মন্দির খোলার অনুমতি দেয়। সেই মত রাজ্যের অধিকাংশ মন্দির খুলে গেলেও বন্ধ ছিল তারাপীঠ। ১৪ জুন মন্দির খোলার বিষয়ে বৈঠকে বসে কমিটি।

- Advertisement -

ওই দিন ঠিক হয় ২০ জুন ফের বৈঠক ডেকে পরবর্তী সিদ্ধান্ত নেওয়া হবে। সেই মত আজকের বৈঠকে ঠিক হয় রথের দিন অর্থাৎ মঙ্গলবার খুলে যাবে মন্দির দরজা। সকাল থেকে পুণ্যার্থীরা মায়ের পুজো দিতে পারবেন। তবে এবার রথযাত্রা বের হবে না বলে মন্দির কমিটি জানিয়ে দিয়েছে।

মন্দির কমিটির সভাপতি তারাময় মুখোপাধ্যায়, সম্পাদক ধ্রুব সাহা বলেন, সমস্ত রকম রীতি মেনে পুজো করা হবে। ইতিমধ্যে তিনটি স্যানিটাইজার টানেল বসানো হয়েছে। পুণ্যার্থীরা তার ভিতর দিয়ে প্রবেশ করবেন। সামাজিক দূরত্ব বজায় রেখে পুণ্যার্থীদের দাঁড়াতে হবে। এই মুহূর্তে সেবাইত ছাড়া কাউকে গর্ভগৃহে প্রবেশ করতে দেওয়া হবে না। বাইরে থেকেই মা তারাকে দর্শন করে সন্তুষ্ট থাকতে হবে।

মন্দিরের সেবাইত, কমিটির প্রাক্তন সভাপতি শ্যামাচরণ মুখোপাধ্যায় বলেন, প্রতি বছর মা তারাকে রথে বসিয়ে তারাপীঠ প্রদক্ষিণ করানো হত। কিন্তু এবার করোনা ভাইরাসের কথা মাথায় রেখে মায়ের রথ এবার ঘুরবে না। শুধুমাত্র রথে মায়ের পুজো হবে। একই সঙ্গে মন্দির কমিটির ভান্ডারা আপাতত বন্ধ থাকছে। কোনও পুণ্যার্থী ভান্ডারা দিলেও মন্দিরে খাওয়ানো যাবে না। প্রয়োজনে মায়ের পুজো করে শ্মশানে খাওয়ানো যেতে পারে।